টাইগারদের বোলিং কোচের আবেদন করেও যে কারণে নাম প্রত্যাহার করলেন টেইট

ব্যাটিং ও বোলিং কোচ পদে আবেদনকারীদের আজ অনলাইনে সাক্ষাৎকার নিয়েছে বিসিবি। বোলিং কোচ পদে আবেদন করা অস্ট্রেলিয়ার সাবেক পেসার শন টেইট শেষ মুহূর্তে নাম সরিয়ে নিয়েছেন। বিসিবির কোচ নিয়োগ কমিটির সদস্য নাঈমুর রহমান দুর্জয় সাক্ষাৎকার শেষে জানিয়েছেন, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে তাঁর চুক্তি হয়েছে।

এ ছাড়া এই পদে আবেদন করা দেশি কোচ মাহবুবুল আলম জাকি, নিউজিল্যান্ডের আন্দ্রে অ্যাডামস ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের কোরি কলিমোরের সাক্ষাৎকার নেওয়া হয়েছে।

কলিমোর অবশ্য বিসিবির হাইপারফরম্যান্স বিভাগের (এইচপি) বোলিং কোচ হিসেবে কাজ করছেন। অ্যালান ডোনাল্ড চলে যাওয়ার পর জাতীয় দলের সঙ্গেও কাজ করেছেন তিনি।

তবে ব্যাটিং কোচ পদে দেশীয় তুষার ইমরানকে বিবেচনায় নেওয়া হয়নি। কারণ হিসেবে নাঈমুর জানিয়েছেন, ‘তুষার ইমরান সময় পার হয়ে যাওয়ার (আবেদনের সময়) পর আবেদন করেছে।’

তুষার ছাড়া এই পদে আবেদন করা শ্রীলঙ্কার থিলান সামারাবিরা, নিউজিল্যান্ডের রস টেলর, বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দলের স্টুয়ার্ট ল ও এইচপির ব্যাটিং কোচ ডেভিড হ্যাম্প সাক্ষাৎকার দিয়েছেন।

তাঁদের মধ্যে টেলরের ক্ষেত্রে বছরের একটা নির্দিষ্ট সময় কাজ করার শর্ত আছে। এ নিয়ে নাঈমুর জানিয়েছেন, ‘রস টেলরের যে ব্যাপারটা, তার সঙ্গে আমাদের যোগাযোগ হয়েছে। কিন্তু তাকে পাওয়া বা কাজের পদ্ধতি, আমরা যেভাবে চাই সেভাবে হয়তো পাব না। ওই আবেদনকারী যেভাবে চায়, তার সঙ্গে আমাদের নাও মিলতে পারে। তবে আমরা যোগাযোগ করছি। রস টেলর আগ্রহ প্রকাশ করেছে। কিন্তু তার সময়ের কিছু সীমাবদ্ধতা আছে। এগুলো নিয়ে পরে আলাপ হতে পারে।’

আবেদনকারীদের কাছে কী জানতে চাওয়া হয়েছে প্রশ্নে নাঈমুর বলেছেন, ‘তাদের কাজের পদ্ধতি বা বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে তারা কিভাবে কাজ করতে চায়, এই জিনিসগুলোর ওপরই মূলত আমাদের আগ্রহ ছিল। তারা কে কিভাবে দেখছে। যারা এখানে এর মধ্যে কাজ করেছে তাদের অভিজ্ঞতা একরকম। আর যারা নতুন করে কাজ করতে আগ্রহী, তাদেরটা একরকম। এটা একটা মিশ্র প্রতিক্রিয়া ছিল। তাদের নতুন ভিশন আমরা জানতে পেরেছি। পরবর্তী প্রক্রিয়া হচ্ছে আমরা বসে চূড়ান্ত করে আমাদের যে সুপারিশ সেটা বোর্ডে প্রস্তাব করব অনুমোদনের জন্য।’

পরবর্তী ধাপে বাকি দুই ক্যাটাগরি ফিটনেস ট্রেনার ও ফিজিওর সাক্ষাৎকার নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন নাঈমুর।