ক্যান্সারে আক্রান্ত এক মায়ের পাশে দাড়ালেন মুশফিক

60

নিজের নয়, এক সতীর্থ খেলোয়াড়ের মা। তবুও তাঁর জন্য মুশফিকুর রহিমের মন কাঁদে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আফগানিস্তান সিরিজ সামনে রেখে বাংলাদেশ দলের কন্ডিশনিং ক্যাম্প শুরু হয়েছে কাল। আজ ছিল বিশ্রাম, তবে মুশফিক বিশ্রাম নেননি। চলে এসেছেন মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে। ঘণ্টা দু-এক অনুশীলনের পর দুপুর ১টার দিকে মুশফিক গেলেন হ‌ুমায়ূন কবীরের বাসায়।

১০টি প্রথম শ্রেণি ম্যাচ আর ৪টি লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ খেলা হ‌ুমায়ূনের ক্যারিয়ার থমকে গেছে অনেক আগেই। নানা কারণে পথ হারিয়ে ফেলা ২৮ বছর বয়সী লেগ স্পিনার কিছুদিন আগে বিরাট এক সংকটেই পড়েছিলেন। বাবা ক্যানসারে আক্রান্ত হয়ে মারা যান। একই সময়ে তাঁর মায়ের শরীরেও ধরা পড়ে ক্যানসার। জীবনের এই সংকটময় মুহূর্তে হ‌ুমায়ূনের পাশে এসে দাঁড়ান মাশরাফি বিন মুর্তজা, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহিম ও তামিম ইকবালের মতো তারকা ক্রিকেটাররা।

মুম্বাইয়ে চিকিৎসার পর কিছুটা উন্নতি হয়েছে হ‌ুমায়ূনের মায়ের। আজ অনুশীলনের পর নিজ থেকেই মুশফিক আগ্রহ প্রকাশ করেন ক্যানসারে আক্রান্ত এই মাকে দেখে আসার। হ‌ুমায়ূনের বাসায় ছিলেন ২০ মিনিটের মতো। মুশফিক কাছে পেয়ে কতটা খুশি হয়েছেন সেটি বলছিলেন হ‌ুমায়ূন, ‘মা অনেক দিন ধরে পিত্তথলির ক্যানসারে আক্রান্ত। কাল মুশফিক ভাই বলছিলেন, আজ মাকে দেখতে যাবেন। মা তাঁকে দেখে অনেক খুশি হয়েছে। মায়ের মাথায় হাত বুলিয়ে মুশফিক ভাই বলেন, “আগের চেয়ে অনেক সুস্থ হয়েছেন, আরও সুস্থ হয়ে যাবেন আশা করি।” মা মুশফিক ভাইকে বললেন, “তোমরা খেলোয়াড় হিসেবেই শুধু বড় নও, মনটাও তোমাদের অনেক বড়।”’
সুত্র : প্রথম আলো।