মিলানের বিপক্ষে বার্সার হোঁচট

13

মঙ্গলবার রাতে সান সিরোয় ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচে ইন্টার মিলানের মাঠে অতিথি হয়ে খেলতে নামে বার্সেলোনা। এদিন মাঠে বদলি হিসেবে নেমে একটি গোল করে শুরুতে বার্সাকে এগিয়ে দিয়েছিলেন ম্যালকম। কিন্তু শেষপর্যন্ত লিড ধরে রাখতে পারেনি বার্সা। স্বাগতিক দলের মাউরো ইকার্দির সমতাসূচক গোলে পয়েন্ট ভাগাভাগি করে মাঠ ছাড়তে হয়েছে দু’দলকে।

তবে দলে নাম থাকলেও এদিন মাঠে নামেনি বার্সার সেরা তারকা মেসি। চোট কাটিয়ে সুস্থ হয়ে উঠলেও আগের ম্যাচগুলোর মতো দর্শক সারিতেই খেলা দেখতে দেখা গেছে মেসিকে। দলের এ সেরা অস্ত্রকে ছাড়া খেলতে নেমে প্রথমার্ধে কোনো গোলের দেখা পায়নি বার্সা। বেশ কিছু গোলের সুযোগ পেলেও এলোমেলো আক্রমণে সেগুলো থেকে কাঙ্খিত সাফল্য আসেনি।

বিরতির পরে মাঠে নেমে আক্রমন বাড়িয়ে খেলতে থাকে বার্সা। ম্যাচের ৬০ মিনিটে বার্সার ইভান রাকিতিচ সুযোগ পেয়েও গোলরক্ষকের বরাবর শট নেওয়ায় গোল পাননি। ম্যাচের ৮১ মিনিটে দেম্বেলেকে তুলে ম্যালকমকে মাঠে নামান বার্সা কোচ। আস্থার জবাব দিয়ে ম্যাচের ৮৩ মিনিটেই কোচ ও সমর্থকদের উচ্ছ্বাস উপহার দেন তিনি। এ সময় ফিলিপ কুতিনহোর কাছ থেকে বল পেয়ে ডি বক্সে প্রতিপক্ষ ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে বাঁ পায়ের শটে জালের দেখা পান তিনি।

তবে ম্যাচের ৮৭ মিনিটেই গোল করে ইন্টারকে সমতায় ফেরান মাউরো ইকার্দি। ৮৭ মিনিটে মাতিয়াস ভেসিনের শট বাধা খেয়ে ফিরে আসলে ফিরতি বল ডান পায়ের জোরালো শটে বার্সা গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ইকার্দি। তবে প্রতিপক্ষের মাঠ ১-১ গোলে ড্র নিয়ে ফিরলেও চ্যাম্পিয়নস লিগে সবার আগে নক আউটপর্ব নিশ্চিত করেছে কাতালান ক্লাবটি।

চ্যাম্পিয়নস লিগে এ ড্রয়ের ফলে গ্রুপ ‘বি’তে চার ম্যাচ শেষে তিন জয় ও এক ড্রয়ে ১০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে বার্সেলোনা। ৭ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ইন্টার মিলান।