নাফিসের দুর্দান্ত ফিফটিতে শেষ ওভারে রোমাঞ্চকর জয় পেল রূপগঞ্জ

54
Photo: Collected

বাঁহাতি ব্যাটসম্যান শাহরিয়ার নাফিসের দুর্দান্ত ফিফটিতে ব্রাদার্স ইউনিয়নের বিপক্ষে রোমাঞ্চকর জয় পেয়েছে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। ব্রাদার্সের ছুড়ে দেওয়া ২২১ রানের টার্গেট ৩ উইকেট আর ১ বল হাতে রেখেই পেরিয়ে যায় রূপগঞ্জ।

শুক্রবার (৮ মার্চ) সাভারে ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের তৃতীয় ম্যাচে শুরুতে ব্যাট করে ৮ উইকেট হারিয়ে ২২০ রানের সংগ্রহ পায় ব্রাদার্স। জবাবে ৭ উইকেট হারিয়ে জয় তুলে নেয় রূপগঞ্জ।

২২১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালোই হয় রূপগঞ্জের। প্রথম উইকেট ঝুটিতেই আসে ৬৭ রান। কিন্তু ৩৮ রান করে ওপেনার আজমির আহমেদ আউট হওয়ার পর আর ২ রান যোগ হতেই আরও ২ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে যায় দলটি। দলের এমন বিপদের ব্যাট হাতে দাঁড়িয়ে যান শাহরিয়ার নাফিস। মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান আসিফ আহমেদকে নিয়ে ৫৩ রানের জুটিও গড়েন এই বাঁহাতি।

ব্যক্তিগত ৩৮ রানে আসিফ বিদায় নিলেও অপরপ্রান্তে মাথা ঠাণ্ডা রেখে লড়তে থাকেন নাফিস। তুলে নেন ফিফটিও। যদিও তার ৫৯ রানের ইনিংসটি মাত্র ২ বাউন্ডারিতে সাজানো, তবু ৯৮ বল মোকাবেলা করে দলের উইকেট পতন ঠেকাতে বড় ভূমিকা রাখেন তিনি। তবে অন্যপ্রান্তে আর কোনো ব্যাটসম্যান দাঁড়াতে পারেননি। দলের সপ্তম উইকেট হিসেবে নাফিস যখন বিদায় নেন তখনও জয়ের জন্য ৮ বলে দরকার ১০ রান। শেষ পথটুকু অবশ্য ভালোই ভালোই কাটিয়ে দলকে জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেন মুক্তার আলী (১১*) ও মোহাম্মদ শহীদ (৩*)।

ব্রাদার্সের হয়ে ৩ উইকেট নেন চিরাগ জানি। ২ উইকেট নেন মোহাম্মদ শরীফ। ১টি করে উইকেট পেলেও বল হাতে বেশ কৃপণ ছিলেন শফিউল্লাহ (১০ ওভারে ২৭ রান) ও মোহাম্মদ নাঈম ইসলাম জুনিয়র (১০ ওভারে ৩২ রান)।

এর আগে শুরুতে ব্যাট করতে নেমে ৮২ রানেই ৫ উইকেট হারিয়ে বসে ব্রাদার্স। সেখান থেকে ৯০ রানের জুটি গড়ে বিপদ সামাল দেন ইয়াসির আলী ও শফিউল্লাহ। নাবিল সামাদের বলে আঊত হওয়ার আগে ৬৯ বলে ৬৫ রান করেন ইয়াসির। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩৫ রান আসে শফিউল্লাহ’র ব্যাট থেকে। এছাড়া ফজলে মাহমুদ করেন ৩৪ রান। তবে বাকিদের ব্যর্থতায় ৮ উইকেটে ২২০ রানেই থামে ব্রাদার্সের ইনিংস।

বল হাতে রূপগঞ্জের মুক্তার আলী ও নাবিল সামাদ নেন ২টি করে উইকেট। ১টি করে উইকেট ভাগ করে নেন মোহাম্মদ শহীদ, রিশি ধাওয়ান ও আসিফ হাসান।

ম্যাচসেরা নির্বাচিত হয়েছেন শাহরিয়ার নাফিস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here