সোসিয়েদাদে হোঁচট বার্সার; ফসকে যেতে পারে শীর্ষস্থানও

স্প্যানিশ লা লীগার ম্যাচে রিয়াল সোসিয়েদাদের বিপক্ষে ড্র করেছে বার্সেলোনা। নির্ধারিত সময়ের খেলা ২-২ গোলের সমতায় শেষ হলে পয়েন্ট ভাগাভাগি করেই মাঠ ছাড়তে হয় দুই দলকে।

ম্যাচের শুরু থেকেই দুই দলই সমানে-সমান লড়াই করতে শুরু করে। যদিও ঠিক মতো নিজেদের মেলে ধরতে পারেনি বার্সায় আক্রমনভাগের খেলোয়াড়রা। উল্টো ম্যাচের দ্বাদশ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে স্বাগতিকদের এগিয়ে নেন ওয়েরজাবাল।

৩৭তম মিনিটে বার্সেলোনাকে সমতায় ফেরান গ্রীজম্যান। যদিও সাবেক দলের বিপক্ষে গোল করায় কোন সেলিব্রেশন করেননি এই ফরাসী ফুটবলার।

১-১ সমতায়ই শেষ হয় প্রথমার্ধের খেলা। দ্বিতীয়ার্ধের চতুর্থ মিনিটে এগিয়ে যায় বার্সেলোনা। সতীর্থের পাস অফসাইডের ফাঁদ ভেঙে ধরে ডি-বক্সে ঢুকে পড়েন মেসি। গোলরক্ষককে একা পেয়েছিলেন তিনি, কিন্তু নিজে শট না নিয়ে বাড়ান বাঁ দিকে সুয়ারেজকে। অনায়াসে আসরে নিজের নবম গোলটি করেন উরুগুয়ের এই স্ট্রাইকার।

দ্বিতীয়ার্ধের অষ্টম মিনিটে মেসির দারুণ কর্নারে হেড করেছিলেন বিশ্রাম শেষে ফেরা জেরার্দ পিকে। বল লক্ষ্যেই ছিল, শেষমুহূর্তে গোললাইন থেকে ফেরায় স্বাগতিকরা।

৬২তম মিনিটে সোসিয়েদাদের সমতায় ফেরা গোলে কিছুটা ভাগ্যের ছোঁয়া ছিল। বাঁ দিক থেকে ওইয়ারসাবালের শট ইভান রাকিতিচের পায়ে লেগে দিক পাল্টে জালে ঢুকতে যাচ্ছিল, ঝাঁপিয়ে রুখে দেন মার্ক-আন্ড্রে টের স্টেগেন। কিন্তু বিপদমুক্ত করতে পারেননি তিনি, আলগা বল ছোট ডি-বক্সের মুখে পেয়ে জালে ঠেলেন দেন আলেক্সান্দার ইসাক।

১৬ ম্যাচে ৩৫ পয়েন্ট নিয়ে এখনো লীগ টেবিলের শীর্ষে অবস্থান করছে বার্সেলোনা। এক পয়েন্ট কম নিয়ে দ্বিতীয়স্থানে আছে রিয়াল মাদ্রিদ। যদিও তারা একটি ম্যাচ কম খেলেছে। আগামীকাল ভ্যালেন্সিয়াকে হারাতে পারলেই এককভাবে শীর্ষে চলে যাবে মাদ্রিদের জায়ান্টরা।