বিপিএল টিম রিভিউ : কেমন হলো ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের দল কুমিল্লা ওয়্যারিয়র্স ?

স্পোর্টসজোন২৪.কমের ধারাবাহিক সিরিজ ‘বিপিএল টিম রিভিউ’ এর প্রথম পর্বে থাকছে কুমিল্লা ওয়্যারিয়র্স নিয়ে বিস্তারিত-

কুমিল্লা ওয়্যারিয়র্স লোগো

প্রতিবছই যথেষ্ট ভালো দল গড়তো কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স ফ্রেঞ্চাইজি। এবার ফ্র্যাঞ্চাইজি বদল হলেও যথেষ্ট ভারসাম্যপূর্ণ স্কোয়াডই গড়েছে কুমিল্লা ওয়্যারিয়র্স।

ব্যাটিং ও কিপিং ডিপার্টমেন্ট :-
ভাগ্যের কাছে হেরে এ+ ক্যাটাগরি ব্যাটসম্যান না পাওয়ায় ড্রাফট থেকে নেয় অন্যতম আক্রমণাত্মক ব্যাটসম্যান সৌম্য সরকারকে। এরপর টি২০ স্পেশালিস্ট সাব্বির রহমান ও গত আসরে দুর্দান্ত ব্যাট করা ইয়াসির আলী রাব্বিকে দলভুক্ত করে কুমিল্লা। ঘরোয়া টুর্নামেন্ট ডিপিএল টি২০ তে ভালো ব্যাট করা ফারদিন হাসান অনি (অকেশনাল উইকেটরক্ষক) ও ডিপিএল ‘লিস্ট এ’ ক্রিকেটে ৬০০+ রান করে আলোচিত উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মাহিদুল ইসলাম অঙ্কনকে নিজেদের স্কোয়াডে নিয়েছে ওয়্যারিয়র্স।

এছাড়া আন্তর্জাতিক টি২০ তে দুর্দান্ত ফরমে থাকা শ্রীলঙ্কান উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান বাঁহাতি কুশল জানিথ পেরেরা ও ইংল্যাডের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান দাইউদ মালানকেও ড্রাফট থেকে দলভুক্ত করেছে কুমিল্লা ওয়্যারিয়র্স।

অলরাউন্ডার ডিপার্টমেন্ট :-
দেশি ভালো অলরাউন্ডার না থাকলেও বিদেশী একজন রয়েছে। তিনি শ্রীলঙ্কান টি-২০ সহ অধিনায়ক ফিনিশার ব্যাটসম্যান + মিডিয়াম পেসার দাসুন শানাকাকে। আন্তর্জাতিক টি২০ দুর্দান্ত ফরমে রয়েছে এই ক্রিকেটার।

স্পিন ডিপার্টমেন্ট :-
দেশী বিদেশী মিলিয়ে ভালো হয়েছে স্পিন আক্রমন। দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের অন্যতম সফল বাঁহাতি স্পিনার সাঞ্জামুল ইসলাম, এছাড়া অফ স্পিনার হিসেবে রয়েছে বিশ্বের ২য় সেরা টি২০ বোলার ও বিশ্বের ১ নাম্বার অফ স্পিনার আফগানিস্তানের মুজির-উর-রহমান। তবে লেগ স্পিনার নেই বলে বৈচিত্র্যপূর্ণ হয়নি স্পিন বিভাগ।

পেস ডিপার্টমেন্ট :-
পেস বিভাগে বিদেশী কেউ না থাকলেও দেশের সফল ও উদীয়মান পেসার নিয়ে বেশ শক্তিশালী ও বৈচিত্র রয়েছে এই বিভাগেও।

আন্তর্জাতিক টি২০তে বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল টি২০ পেসার ডানহাতি আল-আমিন হোসেনের সাথে রয়েছে বিপিএলের অন্যতম সফল বাহাতি পেসার আবু হায়দার রনি। এছাড়া ডিপিএল ও ইমারজিং কাপে মুড়িমুড়কির মতো উইকেট পেয়ে আলোচনায় আসা সুমন খানকেও স্কোয়াডে অন্তর্ভুক্ত করেছে কুমিল্লা ওয়্যারিয়র্স।

ক্যাপ্টেন্সি :-
স্কোয়াডে ক্রিকেটার যথেষ্ট থাকলেও অধিনায়ক নিয়ে সমস্যায় পড়তে পারে ফ্রেঞ্চাইজিটি। দেশীয়দের মধ্যে পরীক্ষিত বা অভিজ্ঞ অধিনায়ক কেউ নেই স্কোয়াডে। তাই দলটির তাকিয়ে থাকতে হবে শ্রীলঙ্কান দাসুন শানাকার দিকে। শানাকা যথেষ্ট এটাকিং ক্যাপ্টেন্সি করে। কিছুদিন আগেই পাকিস্তানে গিয়ে র‍্যাংকিংয়ে ১ নাম্বার টি২০ দল পাকিস্তানকেই হোয়াইটওয়াশ (৩-০) করেছে শ্রীলঙ্কা এই শানাকার নেতৃত্বেই। কিন্তু শানাকা পুরো টুর্নামেন্ট খেলতে পারবে কিনা তারউপর নির্ভর করতে হবে, পুরো টুর্নামেন্টে খেললে শানাকাই হতে পারে কুমিল্লা ওয়্যারিয়র্স ক্যাপ্টেন।

কুমিল্লা ওয়্যারিয়র্স স্কোয়াড :-
ব্যাটসম্যান :-
দেশি – সৌম্য সরকার, সাব্বির রহমান, ইয়াসির আলী রাব্বি চৌধুরী, ফারদিন হাসান অনি।
বিদেশী – দাইউদ মালান (ইংল্যান্ড)
উইকেটকিপার :-
দেশি – মাহিদুল ইসলাম অঙ্কন
বিদেশী – কুশল জানিথ পেরেরা (শ্রীলঙ্কা)
অলরাউন্ডার :-
দেশি – নেই
বিদেশি – দাসুন শানাকা (শ্রীলঙ্কা)
স্পিনার :-
দেশি – বাঁহাতি সাঞ্জামুল ইসলাম
বিদেশি – ডানহাতি অফ স্পিনার মুজিব-উর-রহমান (আফগানিস্তান)
পেসার :-
দেশি – আল-আমিন হোসেন, আবু হায়দার রনি, সুমন খান।
বিদেশি – নেই

শক্তিমত্তা – ব্যাটিং বিভাগ।
দুর্বলতা – ভালো কার্যকরী স্পিন অলরাউন্ডার এবং অভিজ্ঞ অধিনায়ক নেই।
অভাব – বিদেশী গতিময় পেসার, কার্যকরী পেস অলরাউন্ডার, বিকল্প স্পিনার ও লেগ স্পিনার নেই।

তবে সবিমিলিয়ে যথেষ্ট ভালো দল হয়েছে, আমার মতে তুলনামূলকভাবে কাগজেকলমে এবারের বিপিএলের ৩য় শক্তিশালী স্কোয়াড কুমিল্লা ওয়্যারিয়র্স।

কুমিল্লার সম্ভাব্য প্রথম একাদশ
১/কুশল জানিথ পেরেরা wk
২/ফারদিন হাসান অনি wk
৩/সৌম্য সরকার
৪/দাইউদ মালান
৫/ইয়াসির আলী চৌধুরী রাব্বি
৬/সাব্বির রহমান রুম্মন
৭/দাসুন শানাকা C(অধিনায়ক)
৮/সাঞ্জামুল ইসলাম
৯/মুজিব উর রহমান
১০/আল-আমিন
১১/আবু হায়দার রনি
দ্বাদশ ম্যান : সুমন খান

আশাকরি, ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা শিরোপা ধরে রাখবে।

Share this post

PinIt
scroll to top