ডোপ টেস্টে ধরা খেয়ে নিষিদ্ধ হচ্ছে কাজী অনিক !

বিপিএলের আগের সিজনে ও অনূর্ধ্ব ১৯ দলের হয়ে দুর্দান্ত পেস বোলিং করে নজর কেড়েছিল কাজী অনিক। কিন্তু এবারের বিপিএলের ড্রাফটে তার নাম না দেখে অনেকেই হতবাক হয়েছিল। এই বিষয়ে বিসিবির জবাব ছিলো টেকনিক্যাল কারনে নেই কাজী অনিক।

কিন্তু এখন বিসিবির ভিতরের সূত্র অনুযায়ী আসলে কাজি অনিক নেই ডোপিংয়ের কারনে। যার ফলে এবারের সদ্য জাতীয় ক্রিকেট লীগ (এনিসিএল) খেলতে দেয়া হয়নি এবং বিপিএল ড্রাফটেও রাখা হয়নি তাকে।

ডোপ টেস্টে পজিটিভ রেজাল্ট আসছে। এবার হয়ত বড়ধরনের শাস্তি পেতে যাচ্ছে কাজী অনিক। কমপক্ষে একবছর নিষিদ্ধ হতে পারে।

অনূর্ধ্ব ১৯ তারকা ও অল্প বয়সে বিপিএল তারকা বনে যাওয়ায় হঠাৎ অনেক টাকাকড়ি / অর্থবিত্ত পেয়ে যাওয়ায় কি বিপথে চলে গেছে অনিক ? নাকি অসৎ মানুষদের উঠাবসা তার, যার কারনে ডোপ নেয়ার অসদুপায় অবলম্বন করলো? উত্তর জানা যাবে পরে হয়ত!

কিন্তু পেস সংকটে ভুগতে থাকা দেশের উঠতি ক্রিকেটাররা এভাবে বিপথে চলে গেলে তাদের এবং দেশের ক্রিকেটের ভবিষ্যত কোনদিকে ?