যে একাদশ নিয়ে ভারতের বিপক্ষে মাঠে নামছে বাংলাদেশ !

সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায় দিল্লীর অরুন জেটলি স্টেডিয়ামে ভারতের সিরিজের প্রথম টি২০ খেলবে বাংলাদেশ।
যাদেরকে নিয়ে সাজানো হতে পারে একাদশ :-

১/লিটন : সাম্প্রতিক সময় ‘পাওয়ার প্লে’তে দ্রুত রান তলায় লিটনের দক্ষতা প্রমানিত।

২/সৌম্য সরকার : তামিম-সাকিব না থাকায় টপ অর্ডারে অভিজ্ঞ কাউকে খেলানোর চিন্তায় সৌম্যকে খেলানো হতে পারে। তবে ব্যক্তি নাইম শেখকেও অভিষেক করাতে পারে।

৩/মুশফিকুর রহিম : সাকিব না থাকায় দলের হাল ধরতে এই পজিশনে খেলতে পারেন মুশফিক। উইকেটকিপিং করবেন তিনিই।

৪/মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ : এমনিতেই সাকিব নেই, তাই ব্যাটিংয়ে বাড়তি দায়িত্ব নিতে ছয় থেকে দুই পজিশন উপরে আসতে পারে মাহমুদুল্লাহ। দলকে নেতৃত্বও দিবেন এই ঠান্ডা মাথার লোক।

৫/আফিফ :- দ্রুত রান তুলার দক্ষতা আছে আফিফের। এছাড়া ফিনিশিং দক্ষতাও ইতিমধ্যে দেখিয়েছে। তাছাড়া ঘরোয়াতে বেশিরভাগ সময় পাচে খেলে আফিফ। এরাই তার মূল পজিশন (যদিও বিপিএলে মাঝেমধ্যে ওপেনিংয়ে বা ওয়ান্ডাউনে ব্যাট করছে)।

৬/মোসাদ্দেক :- জাতীয় দলে তো সাত নাম্বারে ব্যাট করে যাচ্ছে মোসাদ্দেক। এবার একটু ব্যাটিং পজিশনে প্রমোশন পেতে পারে।

৭/আমিনুল ইসলাম : প্রথম ম্যাচে বাজিমাতের পরে প্র‍্যাক্টিস ম্যাচেও ভালো করেছে। একাদশে থাকা একপ্রকার নিশ্চিত। জানেন তো আফিফ মোসাদ্দেকের মতো বিপ্লব কিন্তু মূলত ব্যাটিং অলরাউন্ডার। বোলিংয়ের চেয়ে ব্যাটিং আগে তার।

৮/তাইজুল ইসলাম : সাকিব না থাকায় একজন বাঁহাতি স্পিনার প্রয়োজন। আপাতত তাইজুল ছাড়া স্কোয়াডে বিকল্প বাঁহাতি স্পিনার নেই। তাছাড়া মাঝেমধ্যে ব্যাট হাতে কোনো স্বীকৃত ব্যাটসম্যানকে সাপোর্ট দিতে পারবে।

৯/শফিউল ইসলাম : সাম্প্রতিক সময়ে বেশ ভালো বোলিং করছে। ফলস্বরুপ একাদশে জায়গা পেতে পারে ।

১০/আল-আমিন – একেকসময় দলের একমাত্র টি২০ স্পেশালিস্ট পেসার ছিলো। অন্যতম সেরা উইকেটশিকারিও। এতদিন পরে দলে ফেরানো হয়েছে নিশ্চয় খেলাবে।

১১/মোস্তাফিজুর রহমান : বোলিং ধার আগের মতো নেই তা বলার অপেক্ষা রাখেনা। কিন্তু এরপরেও এই স্কোয়াডের সেরা পেসার সেই।

এই দলে ব্যাটসম্যান বাড়িয়ে নিলে একজন পেসার বাদ পড়বে, এছাড়া ব্যাটিং অরডারে রদলবলদ হতে পারে।