অদ্ভুত এক চোটে জাতীয় লিগে খেলা হচ্ছে না পেসার খালেদের

গতবছর এই দিনে জাতীয় লিগ চলাকালীন সময় জাতীয় দলে ডাক পান খালেদ আহমেদ। অথচ এবারে ২১তম ঘরোয়া লিগ খেলা হচ্ছে পেসার খালেদের।

মুম্বাইয়ে গত জুলাইয়ে খালেদের হাঁটুর মিনিসকাসে অস্ত্রোপচার করানো হয়। মিরপুর জাতীয় ক্রিকেট একাডেমি মাঠে ফিজিও বায়েজিদুল ইসলামের তত্ত্বাবধানে শুরু করেছেন পুনর্বাসনের কাজ। জানালেন, অস্ত্রোপচারের ধাক্কা সামলে ক্রমশ ফিরে পাচ্ছেন নিজেকে।

কেমন আছেন খালেদ,সময় কাটছে কীভাবে? আজ মিরপুরে আসলে জানালেন সাংবাদিকদের প্রশ্নে,খালেদ জানান;
“এখন রিহ্যাবে আছি, এর শেষ বলতে কিছু নেই। ভালো হয়ে গেলেও এটা চালিয়ে যেতে হবে। এখন ৭০ ভাগ ঠিক আছি। বায়েজিদ ভাইয়ের অধীনে আছি। উনি যা পরামর্শ দিচ্ছেন তাই করছি।”

উনি (ফিজিও বায়েজিদ ইসলাম) পরামর্শ দেওয়ায়;
“এখন রিহ্যাবের অংশ হিসেবে স্যান্ড পিটে কাজ করছি, জিম করছি, রানিং, স্কোয়াট মারছি, লেগ প্রেস এগুলাই করছি।”

কিভাবে চোট পেয়েছিলেন খালেদ? তিনি জানান;
“রোজার মাসে ক্যাম্প ছিল। সেটা শেষ করে ঈদের আগের দিন ছুটিতে বাড়িতে গিয়েছিলাম। সেখানে টিভি দেখতে বসে পায়ে টান লাগে, তখন পা সোজা করতে গিয়ে জোরেই মেরে বসেছিলাম। তখনই চোটটা পাই।”

বর্তমানে তিনি মিরপুর জিমনেসিয়াম এসে পুনর্বাসনের কাজ শুরু করছেন। তিনি আশা করছেন বিপিএল দিয়ে আবার মাঠে ফিরবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here