শুভ জন্মদিন ফাইটার ‘শফিউল’

বাংলাদেশ দলের একজন ডানহাতি ফাস্ট-মিডিয়াম বোলারের নাম ‘শফিউল ইসলাম সুহাস’। ৬ অক্টোবর ১৯৮৯ বগুড়ায় জন্মগ্রহন করেন।

সম্প্রতি শেষ হওয়া ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে দুই ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছেন শফিউল”। প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ৪ ওভারে ৩৬ রান দিয়ে গুরুত্বপূর্ণ ৩টি উইকেট নেন। আফগানিস্তানের বিপক্ষে পরের ম্যাচে ৪ ওভারে ২৪ দিয়ে ১ উইকেট নেন।

আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের বাংলাদেশের হয়ে ১১টি টেস্ট, ৫৯টি ওয়ানডে ও ১৪ টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেন। যেখানে টেস্টে ১৭ উইকেট, ওয়ানডেতে ৬৯ উইকেট  ও টি-টোয়েন্টিতে ১২ উইকেট আছে তার ক্যারিয়ারে।

২০১০-এর জানুয়ারিতে ভারত ও শ্রীলঙ্কার অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত ত্রি-দেশীয় ওয়ানডে সিরিজে শফিউলের আন্তর্জাতিক অভিষেক হয়। শফিউলই ছিলেন বাংলাদেশ স্কোয়াডের একমাত্র খেলোয়াড়, আন্তর্জাতিক অঙ্গনে যার কোন পূর্ব অভিজ্ঞতা ছিল না। ঘরোয়া লীগে নজরকাড়া সাফল্য দেখিয়ে নির্বাচকদের মন জয় করতে সক্ষম হন তিনি। শফিউলের একদিনের আন্তর্জাতিক ম্যাচে অভিষেক হয় ২০১০-এর ৪ জানুয়ারি, শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে। রুবেল হোসেনের সাথে তিনি বোলিং ওপেন করেন এবং ৫ ওভারে ৩৯ রান খরচায় নেন ১টি উইকেট। তার প্রথম শিকার ছিলেন কুমার সাঙ্গাকারা, যিনি কিনা ৭৪ রানে কট বিহাইন্ড হন। সিরিজে খেলা দুটি ম্যাচের প্রতিটিতেই ১টি করে উইকেট নেবার সুবাদে পরের মাসে ভারতের বিরুদ্ধে অনুষ্ঠিত টেস্ট সিরিজের জন্য ১৪ জনের স্কোয়াডে তিনি ডাক পান।

২০১৫ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণের লক্ষ্যে বিসিবি কর্তৃপক্ষ ৩০-সদস্যের প্রাথমিক তালিকা প্রকাশ করে। এতে তিনিও অন্তর্ভুক্ত হন। কিন্তু চূড়ান্ত তালিকায় তার স্থান হয়নি। ১৯ ফেব্রুয়ারি রাতে দেরী করে ব্রিসবেনের হোটেলে দলের সাথে মিলিত হবার অভিযোগ উঠে আল-আমিনের বিরুদ্ধে। ফলে, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে আল-আমিনকে প্রতিযোগিতা থেকে দেশে ফেরত পাঠানোর সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।পরিবর্তিত খেলোয়াড় হিসেবে তার স্থলাভিষিক্ত হন তিনি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here