মেসির সাতটি অজানা অথচ অবিশ্বাস্য বিশ্বরেকর্ড

মেসি তার অনন্য ফুটবলশৈলী দিয়ে পুরো ফুটবল দুনিয়াকে বুঁদ করে রেখেছেন। একের পর এক রেকর্ড গড়ছেন,পুরস্কার বাগিয়ে নিচ্ছেন; আবারও রেকর্ড গড়ে তুলছেন। এই তো কিছুদিন আগেই ফুটবল ইতিহাসের সর্বোচ্চ ষষ্ঠবারের মতো ‘ফিফা দ্য বেস্ট’ পুরস্কারটি নিজের করে নিলেন৷ ফিফা দ্য বেস্ট, ব্যালন ডি অর, মেসির গোল, অ্যাসিস্ট সংখ্যা,জয়-পরাজয়ের হিসাব, কখন কোন রেকর্ড ভাঙলেন-গড়লেন তা নিয়ে প্রতিদিন-ই আলোচনা হচ্ছে এবং হতে থাকবে। কিন্তু মেসির এমন কিছু বিশ্বরেকর্ড আছে যেগুলো নিয়ে খুব একটা আলোচনা হয় না। হয়তো সেসব রেকর্ডগুলোর কথা আপনারও অজানা। তাহলে চলুন  দেখা নেয়া যাক মেসির এমন সাতটি অজানা বিশ্ব রেকর্ডের কথা-

০৭.  বিশ্বকাপ গোলরেকর্ড : মেসি এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপের চারটি আসরে খেলেছেন। যেখানে তিনটি আসরেই গোল করেছেন। ২০০৬ সালে নিজের প্রথম বিশ্বকাপে মাত্র ১৯ বছর বয়সে গোলের দেখা পান এই জাদুকর। ২০১৪ সালের ব্রাজিল বিশ্বকাপে মেসি নিজের সর্বোচ্চ “বিশ্বকাপ গোল”- এর দেখা পান। আর্জেন্টিনার রানার্সআপ হওয়া সেই আসরে মেসি করেন চার গোল। তখন তার বয়স ছিল ২৭। এছাড়া সর্বশেষ ২০১৮ সালের রাশিয়া বিশ্বকাপেও ৩১ বছর বয়সী মেসি গোলের দেখা পেয়েছেন।

তাহলে কোন বিশ্বকাপ আসরে মেসি গোল করতে ব্যর্থ হয়েছিলেন?

উত্তরটা হলো ২০১০ সালের আফ্রিকা বিশ্বকাপে।

০৬. ডি-বক্সের বাহির থেকে গোল : গেল বছর মেসি এই বিশ্বরেকর্ডটি নিজের করে নেন। টানা ছয় ম্যাচে বক্সের বাইরে থেকে গোল করেন এই আর্জেন্টাইন সেনসেশন।

সেসব ম্যাচে কারা ছিলো তার প্রতিপক্ষ?
-লেগালেস, সেভিয়া,বিলবাও, অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদ, লাস পালমাস এবং জিরনা।

০৫. যেকোনো ক্লাবের চেয়ে বেশি গোল: কি অবিশ্বাস্য মনে হচ্ছে? হ্যাঁ,মেসি এটাই করে দেখিয়েছেন অনেক আগেই। ২০১৫-১৬ মৌসুমে মেসি ডাইরেক্ট ফ্রি কিক থেকে গোল করেন ২৪ টি; যা কিনা ইউরোপের সেরা ৫ লীগের যেকোনো ক্লাবের চেয়ে বেশি।

তবে ফ্রি-কিকে মেসি-ই সেরা?

০৪. সাবস্টিটিউট ফুটবলার হয়ে সর্বোচ্চ গোল: গত মৌসুমে লেগালেসের বিপক্ষে মেসি প্রথম একাদশের বাইরে ছিলেন। বদলি খেলোয়াড় হিসেবে ওই ম্যাচে নিজের ২২ তম গোল করেন।  যা কিনা ২১ শতকের আর কোন ফুটবলার করে দেখাতে পারেনি।

০৩. গোল এবং অ্যাসিস্ট রেকর্ড: ২০১১-১২ মৌসুমে বার্সা মোট ৬ টি ভিন্ন ভিন্ন টুর্নামেন্টে অংশ নেয়। যার প্রতিটিতে মেসি গোল এবং অ্যাসিস্ট করেন। যা কিনা ফুটবল ইতিহাসে দ্বিতীয়বার আর কেউ করতে পারে নাই।

০২. গোল্ডেন বল রেকর্ড: আর্জেন্টিনার জার্সি গায়ে মেসি নাকি ম্লান! তবে আকাশী-সাদা জার্সি গায়েও তো মেসির অর্জন কম না। আর্জেন্টিনা হয়ে খেলা ভিন্ন ভিন্ন টুর্নামেন্টে সবগুলোতে অন্তত একবার হলেও সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার অর্থাৎ ‘গোল্ডেন বল’ জিতেছেন।

আর্জেন্টিনার হয়ে মেসির গোল্ডেন বল জয়ী টুর্নামেন্টঃ
– ২০০৫ সালের অ-১৯ বিশ্বকাপ
– ২০০৮ সালের অলিম্পিক
-২০১৫ সালের কোপা আমেরিকা
এবং ২০১৪ সালের বিশ্বকাপ

জাতীয় দলের হয়ে মেসি হয়তো শিরোপা জিততে পারেনি। তবে মেসির মতো এই অর্জন আর কোন ফুটবলারের নাই।

০১. সর্বোচ্চ চ্যাম্পয়িন্স লীগ হ্যাটট্রিক: ২০১৮-১৯ মৌসুমে এই রেকর্ডটি নিজের করে নেন মেসি। চ্যাম্পিয়ন্স লীগে মেসির হ্যাটট্রিক সংখ্যা এখন ৮; যা কিনা তার প্রতিদ্বন্দ্বী ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর চেয়ে একটি বেশি।

এখন আগামী সময়গুলোতে দেখা-ই যাক এই রেকর্ডটিতে কে কাকে ছাড়িয়ে যেতে পারে।

প্রিয় পাঠক, শুরুতেই বলা হয়েছে, এই সাতটি মেসির সর্বকালের সেরা রেকর্ডগুলো নয় বরং এমন সাতটি সেরা রেকর্ড যা কিনা সচারাচর আলোচনা করা হয় না। তাই খেলাপ্রেমী আপনি অনলাইনে  এরকম বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ,ফিচার কিংবা পরিসংখ্যানসহ খেলাধুলার যেকোনো আপডেট পেতে যুক্ত থাকুন স্পোর্টসজোনের সাথে…

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here