স্মিথকে শূন্য রানে আউট করা “চার ভাগ্যবান বোলার যারা”

সদ্য শেষ হওয়া অ্যাশেজে নিজেকে অন্য এক মাত্রায় নিয়ে গেছেন অস্ট্রেলিয়ান সাবেক অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ। বল টেম্পারিং কাণ্ডে এক বছর পর ফিরেই এই ডানহাতি দেখালেন তিনি কেন নম্বর ওয়ান।

অ্যাশেজ সিরিজে ৭ ইনিংস ব্যাটিংয়ের সুযোগ পেয়ে দুটি সেঞ্চুরি আর একটি ডাবল সেঞ্চুরিসহ ৭৭৪ রান করেছেন স্মিথ। গড় ১১০.৫৭! সিরিজের সর্বশেষ ইনিংসে আউট হয়েছেন ২৩ রানে, যেটি কিনা তার সর্বনিম্ন!

বোঝাই যাচ্ছে, স্মিথকে আউট করা কোনো সাধারণ কাজ নয়। আর সেটা যদি হয় শূন্য রানে? কাজটা তো আরও কষ্টের। টেস্টে ক্রিকেটে মাত্র চারজন বোলার স্মিথকে শূন্যতে আউট করার ‘কীর্তি’ দেখাতে পেরেছেন।

চলুন দেখনি এক চারজন বোলার কারা?

# কেশভ মহারাজ (দক্ষিণ আফ্রিকা):
স্মিথকে সর্বশেষ শূন্যতে আউট করেছেন দক্ষিণ আফ্রিকার বাঁহাতি স্পিনার কেশভ মহারাজ। ২০১৬ সালে তিন ম্যাচের সিরিজের প্রথম টেস্টে পার্থের উইকেটে চার বল খেলে শূন্য রানে সাজঘরের পথ ধরেন স্মিথ।

#জুলফিকার বাবর (পাকিস্তান):
২০১৪ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট সিরিজে রান পেতে বেশ সংগ্রাম করতে হয় স্মিথকে। এশিয়ার স্পিন সহায়ক উইকেটে ভীষণ চাপে পড়ে অস্ট্রেলিয়া। সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে পাকিস্তানের ৫৭০ রানের জবাবে ৯৭ রানে ৪ উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। কিন্তু ওই মুহূর্তে শূন্য করে দলকে আরও বিপদে ফেলে দেন স্মিথ।

#ডেল স্টেইন (দক্ষিণ আফ্রিকা):
২০১৪ সালে ইংল্যান্ডকে ৫-০তে হারিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা খেলতে গিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। প্রথম টেস্টে তারা জিতেও যায়। কিন্তু পরের ম্যাচেই ডেল স্টেইনের রিভার্স সুইংয়ের সামনে অসহায় হয়ে পড়েন অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটসম্যানরা। মাইকেল ক্লার্ক আউট হওয়ার পরের বলেই গোল্ডেন ডাকে ফেরেন স্মিথ।

#ক্রিস ট্রেমলেট (ইংল্যান্ড):
টেস্ট ক্রিকেটে স্মিথকে প্রথম শূন্যর স্বাদ দিয়েছিলেন ইংলিশ পেসার ক্রিস ট্রেমলেট। ২০১৩ সালের অ্যাশেজে প্রথম টেস্টে বড় লিড পাওয়ার পর দ্বিতীয় ইনিংসে দ্রুত রান তোলার চেষ্টা করে অস্ট্রেলিয়া। সেই চেষ্টাতেই শূন্যতে সাজঘরের পথ ধরেন স্মিথও।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here