শান্তশিষ্ট কোচ ল্যাঙ্গেভেল্ট

কোর্টনি ওয়ালশের বিদায়ের পর নতুন কোচ হিসেবে নিযুক্ত হয়ে সম্প্রতি টাইগারদের সঙ্গে কাজ শুরু করেছেন চার্ল ল্যাঙ্গেভেল্ট ৷ নতুন দেশের নতুন পরিবেশে নিজেকে দারুণভাবে মানিয়ে নিয়েছেন তিনি। দক্ষিণ আফ্রিকান সাবেক পেসার ল্যাঙ্গেভেল্টের আচরণের একটি দিকের জন্য তিনি লাল-সবুজের দেশের ক্রিকেটারদের সঙ্গে দারুণভাবে মিশতে পারছেন।

বাংলাদেশের অধিকাংশ ক্রিকেটাররাই বেশ শান্তশিষ্ট স্বভাবের । বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের থেকে উগ্র স্বভাব খুব কমবারই দেখা গিয়েছে। বর্তমান কোচ ল্যাঙ্গেভেল্টও ঐ একই প্রকৃতির। তাঁর ক্যারিয়ারের সময়েও অন্যসব প্রোটিয়ান ফাস্ট মতো ছিলেন না তিনি। অনেকেই যেখানে প্রতিপক্ষের সঙ্গে উগ্র আচরণ প্রদর্শন বা স্লেজিং করতেন, ল্যাঙ্গাভেল্ট সেখানে ছিলেন নিতান্তই ভদ্র স্বভাবের সহজ সরল ব্যক্তি।

টাইগারদের দায়িত্বটা বুঝে নেওয়ার পর থেকেই তিনি গণমাধ্যমকে জানিয়ে আসছেন, খেলোয়াড়দেরকেই গুরুত্ব প্রদান করবেন তিনি । খেলোয়াড়দের উৎসাহিত করে তাদের সেরাটা বের করে আনাটাই হবে তাঁর উদ্দেশ্য। এছাড়াও সম্পর্কের উন্নতির জন্য তিনি নানারকম পরিকল্পনাও তৈরি করেছেন। তাই বলা বাহুল্য, শান্তশিষ্ট কোচের আমলে হয়তো হারিয়ে ফেলা পেস আক্রমণকে ফিরে পেতে পারে বাংলাদেশ। সঙ্গে সঙ্গে তাঁর সঙ্গে মাশরাফি-মোস্তাফিজদের রসায়নটাও বেশ জমে উঠবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here