সব কোচই ভালো ; শেখাটা নিজেদের ওপর : তাসকিন

তাসকিন আহমেদ। ছবি : সংগৃহীত।

বিশ্বকাপের পর পুরোনো সব কোচকে ছাঁটাই করে নতুন কোচদের নিয়োগ দিয়েছে বিসিবি । নতুন কোচ নির্বাচনের পর দলের প্রধান তিন শাখার দায়িত্বপ্রাপ্ত হয়েছেন তিন প্রোটিয়ান – রাসেল ডোমিঙ্গো (প্রধান কোচ), নিল ম্যাকেঞ্জি (ব্যাটিং কোচ) ও চার্লস ল্যাঙ্গাভেল্ট। তিন কোচের এই জুটি একসঙ্গে ২০১৩ থেকে ২০১৭ পর্যন্ত দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে কাজ করেছিলেন এবং দলকে অনেককিছুই দিয়েছিলেন। তাই সঙ্গতকারণেই তাঁদের প্রতি ক্রিকেটার-ভক্তদের প্রত্যাশার পারদ একটু বেশি।

সম্প্রতি সাংবাদিকদের সাথে কথা বলার সময় তরুণ পেসার তাসকিন আহমেদও জানিয়েছেন প্রত্যাশার কথা৷ তিনি বলেন, ‘আসলে ল্যাঙ্গাভেল্ট অভিজ্ঞ কোচ। তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার মতো বড় দলের জন্য কাজ করেছেন। তাঁর কাছ থেকে অনেক কিছুই শেখার আছে। আমরা চাই তিনি আমাদের ভুল-ত্রুটিগুলো দেখে উন্নতির জন্য কাজ করবেন। বোলিংয়ের বেসিক তো সব এক। সেখানে উন্নতি কীভাবে করা যায় সেটা আমাদের শেখার আছে। আশা করি, তাঁর কাছ থেকে নতুন অনেক কিছুই শিখবো।’

সাবেক কোচ কোর্টনি ওয়ালশকে ছাঁটাই করার প্রধান কারণ ছিল, তাঁর আমলে পেসারদের তেমনভাবে উন্নতি হয়নি এবং তাঁর সঙ্গে খেলোয়াড়দের ভাষাগত কারণে দূরত্ব সৃষ্টি হয়েছিল । ল্যাঙ্গাভেল্টের আমলে এ সমস্যাগুলো দূর হবে কিনা জানতে চাইলে তাসকিন বলেন, ‘আসলে যাঁরা এই পর্যন্ত আমাদের কোচ ছিলেন, সবাই ভালো। নিজ নিজ সময়ে তাঁরা ছিলেন কিংবদন্তি । কোচ হিসেবেও তাঁদের প্রতিভা দারুণ। আমি বলতে চাই সব কোচই ভালো, শুধু আমাদের শিখতে হবে মনোযোগ দিয়ে। কোচের পাশাপাশি নিজেদের উন্নতির জন্য কাজটা নিয়মিত আমাদেরই করতে হবে।’

এ সময় প্রধান কোচ রাসেল ডোমিঙ্গো সম্পর্কে তাসকিন বলেন, ‘আসলে যারা এই পর্যন্ত আমাদের কোচ ছিলেন সবাই ভালো। নিজ নিজ সময়ে তারা ছিলেন লেজেন্ড। কোচ হিসেবেও তাদের প্রতিভা দারুণ। আমি বলতে চাই সব কোচই ভালো, ‘শুনেছি তিনি কোচ হিসেবে দারুণ অভিজ্ঞ। তিনি দক্ষিণ আফ্রিকা দলকে অনেক কিছু দিয়েছেন। বড় একটি দলের সঙ্গে কাজ করেছেন। তাঁর কাছে আমাদের অনেক কিছু শেখার আছে থাকবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here