ফাইনালে সুপার ওভারের ছক্কা দেখেই শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন নিশামের কোচ

গত ১৪ জুলাই দ্বাদশ ক্রিকেয় বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচটি ছিলো উত্তেজনা আর রোমাঞ্চে ভরপুর। মূল ম্যাচ টাই হবার পর সুপার ওভারও টাই হওয়া সে লড়াইটিকে অনেকেই দাবী করছেন বিশ্বকাপ ইতিহাসের সেরা ফাইনাল ম্যাচ হিসেবে। আর শেষমেষ ভাগ্যের কাছে হেরেছে কিউইরা।

তবে এই ফাইনাল ম্যাচের উত্তেজনা সইতে পারেননি নিউজিল্যান্ডের অলরাউন্ডার জিমি নিশামের ছোটবেলার শিক্ষক ও কোচ ডেভিড জেমস গর্ডন। নিশামের ব্যাটে ভর করেই শিরোপার পথে এগিয়ে যাচ্ছিল নিউজিল্যান্ড।

সুপার ওভারে ইংল্যান্ডের করা ১৫ রানের জবাবে খেলতে নেমে দ্বিতীয় বলেই বিশাল এক ছক্কা হাঁকিয়েছিলেন নিশাম। সে ওভারটির ৫ বল খেলে তিনি করেন ১৩ রান। কিন্তু দ্বিতীয় বলে সেই ছক্কার পর আর কিছু দেখে যেতে পারেননি নিশামের কোচ গর্ডন। কারণ অতিরিক্ত উত্তেজনার কারণে সেই ছক্কার পরপরই শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন হাসপাতালে শয্যাশায়ী এ কোচ।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে নিজের ছোটবেলার কোচের মৃত্যুর খবর জানিয়েছেন নিশাম। যেখানে তিনি লিখেন, ‘আমার হাইস্কুল টিচার, কোচ এবং একজন বন্ধু ছিলেন ডেভ গর্ডন। ক্রিকেট খেলার প্রতি আপনার ভালোবাসা অতুলনীয়। যারা আপনার অধীনে খেলতে পেরেছি, তারা বেশ সৌভাগ্যবানই আমার মতে। আশা করি আপনি গর্ব নিয়েই বিদায় নিতে পেরেছেন। সবকিছুর জন্য ধন্যবাদ। পরকালে শান্তিতে থাকুন।’

এদিকে গর্ডনের মৃত্যুর সঠিক সময় নিশ্চিত করে তার মেয়ে লিওনি বলেন, ‘শেষ ওভারের সময় একজন নার্স এসে বললো যে বাবার শ্বাসপ্রশ্বাস পরিবর্তিত হচ্ছে। আপনি বিশ্বাস করবেন কি-না, আমার মনে হয় নিশাম যখন ছক্কা হাঁকাল, তখনই বাবা তার শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেছেন।’

অকল্যান্ড হাইস্কুলের টিচার হিসেবে দীর্ঘ ২৫ বছর দায়িত্ব পালন করা গর্ডন , শুধুমাত্র জিমি নিশামেরই কোচ ছিলেন না। বিশ্বকাপ দলের গুরুত্বপূর্ণ অংশ লকি ফার্গুসনসহ আরও বেশ কয়েকজন ক্রিকেটারকে ক্রিকেটের প্রথম পাঠটাও দিয়েছিলেন গর্ডন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here