ক্রিকেটের হিসেবনিকেশ : বোলিং গড়, স্ট্রাইক রেট, ইকোনোমি রেট

স্ট্রাইক রেট ও গড় নিয়ে আলোচনা হয় প্রতিনিয়ত, কিন্তু বোলিংয়েও গড়, স্ট্রাইক রেট আছে, এছাড়া ইকোনোমি রেট তো আছেই।

★বোলিং গড় :- একজন বোলারের যত রান দেয়, ওই রানসংখ্যাকে বোলারের শিকার করা উইকেট সংখ্যা দ্বারা ভাগ করলে প্রাপ্ত ভাগফলই বোলারের গড়।

যেমন – কিউই বাঁহাতি পেসার ট্রেন্ট বোল্ট অডিয়াইতে মোট ৩৭৮৩ রান দিয়েছেন, কিন্তু উইকেট নিয়েছেন মোট ১৫১ টি। অর্থাৎ, বোল্টের বোলিং গড় = মোট রান / মোট উইকেট = ৩৭৮৩/১৫১ = ২৪.০৫

(যে বোলারের বোলিং গড় যত কম, বুঝা যায় সে বোলার তত কম রানের বিনিময়ে একেকটি উইকেট শিকার করেন)

★বোলিং স্ট্রাইক রেট : বোলারের মোট বলকে মোট উইকেট দ্বারা ভাগ করলে প্রাপ্ত ভাগফলই বোলারের স্ট্রাইক রেট।

যেমন ট্রেন্ট বোল্ট অডিয়াইতে মোট ৪৪৯৩ টি বল করেছেন এবং উইকেট নিয়েছেন ১৫১ টি। অর্থাৎ বোল্টের বোলিং স্ট্রাইক রেট = মোট বল / মোট উইকেট = ৪৪৯৩/১৫১ = ২৯.৭৫

(যে বোলারের বোলিং স্ট্রাইক রেট যত কম, বুঝা যায় সে বোলার তত কম বলের ব্যবধানে একেকটি উইকেট শিকার করে)

★ইকোনোমি রেট :- বোলারের দেয়া মোট রানকে বোলারের করা মোট বল দ্বারা ভাগ করে প্রাপ্ত ভাগফলের সাথে ৬ গুন করলে প্রাপ্ত গুণফলই বোলারের ইকোনোমি রেট। ৬ বল = ১ ওভার, ইকোনোমি রেট হিসেব করা হয় ওভারপ্রতি

যেমন – ট্রেন্ট বোল্ট অডিয়াইতে ৪৪৯৩টি বল করে ৩৭৮৩ রান দিয়েছেন। অর্থাৎ বোল্টের ইকোনোমি রেট = মোট রান / মোট বল ★ ৬ = ৩৭৮৩/৪৪৯৩ = ০.৮৪★৬ = ৫.০৪।

(যে বোলারের ইকোনোমি রেট যত কম, সে বোলার ওভারপ্রতি তত কম রান দেয়।আধুনিক ক্রিকেটে কম রান দেয়া ভালো বোলারের অন্যতম গুণ)