নতুন ফরমেটের চ্যাম্পিয়ন্স লীগ কপাল পুড়াবে লা লীগার

নতুন আঙ্গিকে ইউরোপের সব থেকে বড় ক্লাব টুর্নামেন্ট চ্যাম্পিয়ন্স লীগের আয়োজন করতে চায় উয়েফা। প্রতিযোগিতার ধরনে যুগান্তকারী পরিবর্তন আনতে চায় তারা।

২০২৪ সাল থেকে নতুন মোড়কে ক্লাব ফুটবলের প্রতিযোগিতাগুলো আয়োজনের জন্য ইউরোপের বড় সব ক্লাব নিয়ে গড়া ইউরোপিয়ান ক্লাব অ্যাসোসিয়েশনের (ইসিএ) সঙ্গে কাজ করছে উয়েফা।

সংশ্লিষ্ট সূত্র থেকে রয়টার্স জানতে পেরেছে যে নতুন আঙ্গিকের প্রতিযোগিতাটি হবে তিন স্তর বিশিষ্ট এবং ক্লাবগুলো তিন স্তরের মধ্যে ওঠা-নামা করবে।

সর্বোচ্চ স্তরের প্রতিযোগিতা হবে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন্স লিগের মতোই। দল থাকবে ৩২টি, তবে গ্রুপ পর্বে বর্তমানের মতো আট গ্রুপে চারটি করে দলের বদলে তখন থাকবে চার গ্রুপে আটটি করে দল। তার মানে প্রতিটি দল বর্তমানের মতো ছয়টি গ্রুপ ম্যাচ খেলার পরিবর্তে খেলবে ১৪টি ম্যাচ।

২৪টি দল পরের বছর সর্বোচ্চ পর্যায়ে জায়গা ধরে রাখবে, চারটি দল দ্বিতীয় স্তর (বর্তমান ইউরোপা লিগ) থেকে উঠে আসবে প্রথম স্তরে। অবশিষ্ট চারটি জায়গা থাকবে ইউরোপের ৫৪টি ঘরোয়া লিগের চ্যাম্পিয়নদের জন্য।

এর ফলে ঘরোয়া প্রতিযোগিতার মাধ্যমে ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় জায়গা করে নেওয়ার ঐতিহ্য ভেঙ্গে পড়বে বলে গোল টিভি চ্যানেলকে বলেন লা লীগার সভাপতি হ্যাভিয়ের তেবাস।

“চ্যাম্পিয়ন্স লিগ সংস্কারের একটা আলোচনা চলছে। কিন্তু আদতে এটা নতুন একটা প্রতিযোগিতা। ঘরোয়া লিগুগলো চ্যাম্পিয়ন্স লিগে জায়গা করে নেওয়ার পথ হিসেবে কাজ করে। কিন্তু সেটা আর থাকবে না।

অনেকগুলো ক্লাব সবসময় সেরা ৩২ এর মধ্যেই থাকবে। দশ এর মধ্যে আমার উদ্বেগের মাত্রা সাত থেকে আট।

কোনো সন্দেহ নেই যে পড়বে। উয়েফা এটা করতে পারে না। আর আমরা অন্য সংস্থাগুলোকেও বোঝাতে চাই যে এটা এগোতে পারে না। আমরা একটা কৌশল দাঁড় করাতে কাজ করছি।”