মা নামাজ পড়তেন, পেছনে দাঁড়িয়ে বাতাস করতেন সাকিব আল হাসান

সাকিব আল হাসানকে সবাই একটু উদ্ধত, বেয়াড়া কাউকে পরোয়া না করা খেলোয়াড় হিসেবেই মনে করে থাকে। সে মানুষটাই আসলে ওইরকম। খেলার মাঠের সাকিবের মধ্যে আবেগ খুবই অল্প দেখেছে ক্রিকেটবিশ্ব।

২০১২ সালের এশিয়া কাপের ফাইনালে সেই দুই রানে হারের ম্যাচেই সাকিবকে অশ্রু বিসর্জন দিতে দেখা গেছে খেলার মাঠেই। এর বাইরে তেমন আবেগ সে কখনোই দেখায় নি।

এই কিছুদিন আগেই চলে যাওয়া মা দিবসে টাইগারদের মায়েদের কাছ থেকে তাদের সূর্যসন্তানদের সম্বন্ধে অনেক জানা-অজানা তথ্য সকলের সামনে নিয়ে এসেছে লাইফবয়। সেখানে মাশরাফি,মাহমুদুল্লাহ, মুশফিক, মোসাদ্দেক, রুবেলের মায়েদের সাথে কথা বলেন সাকিব আল হাসানও।

সেখানেই সাকিবের মা শিরীন রেজা জানান,“একদিন আমি নামাজ পড়তেছিলাম। তো হঠাৎ মনে হলো আমার পেছনে খুব বাতাস লাগছে। নামাজ শেষ করেই আমি পেছনে ফিরে তাকায় আর দেখতে পায় আমার ছেলেটা দাঁড়িয়ে আমাকে বাতাস করছে।”

সাকিবের মা সহ অন্যান্য সকল ক্রিকেটারের মায়েরাই বাংলাদেশের বিশ্বকাপ সাফল্যের জন্য মহান সৃষ্টিকর্তার কাছে মন থেকে প্রার্থনায় করেছেন।