ফাইনালের আগে অপরাজিত থাকার মিশনে বিকেলে মাঠে নামছে বাংলাদেশ

লক্ষ্য একটাই। যে করেই হোক ওয়ালটন ত্রিদেশীয় সিরিজের ট্রফি জয়।

সেই লক্ষ্য পূরণে এরই মধ্যে ফাইনালে পা দিয়ে রেখেছে মাশরাফি ব্রিগেড। তাইতো ফুরফুরে টিম বাংলাদেশ। কিন্তু নিয়ম রক্ষার এক ম্যাচ যে এখনও বাকি! আজ বিকেলে সেই ম্যাচ খেলতেই মাঠে নামবে বাংলাদেশ। প্রতিপক্ষ স্বাগতিক আয়ারল্যান্ড, যাদের বিপক্ষে প্রথমবারের মতো খেলবে টাইগাররা। প্রথম মুখোমুখি পন্ড হয়েছিল বেরসিক বৃস্টিতে।

বিশ্বকাপের ঠিক আগে আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজ জয় হবে অনেক বড় অর্জন। ওয়েষ্ট ইন্ডিজকে দুবার হারিয়ে বাংলাদেশ সহজেই গেছে ফাইনালে। বৃষ্টিতে পয়েন্ট ভাগাভাগি হওয়ায় সিরিজে এখনও কোনো ম্যাচ হারেনি বাংলাদেশ। আজকের ম্যাচেও অপরাজিত থাকার মিশন মাশরাফির দলের। বিশ্বকাপের ঠিক আগে লাল-সবুজ জার্সিধারীদের প্রতিটি ম্যাচ জয় হবে বাড়তি পাওয়া। নিজেদের ঝালিয়ে নেওয়ার মিশনে প্রতিটি জয় দেবে আত্মবিশ্বাস।

শেষ ম্যাচে বাংলাদেশ নামবে ফুরফুরে মেজাজ নিয়েই। দলের প্রতিটি ক্রিকেটার নিজেদের সাফল্য উপভোগ করছে গাঢ়ভাবে। মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিক কোনো অনুশীলন ছিল না। ঐচ্ছিক অনুশীলন করেছেন কয়েক ক্রিকেটার। আইরিশদের বিপক্ষে সাইডবেঞ্চের পরীক্ষা-নিরীক্ষা হবে।

আয়ারল্যান্ড সফরে আছেন ১৯ ক্রিকেটার। ক্যারিবীয়ানদের বিপক্ষে একাদশে না থাকা কয়েকজন আজ মাঠে নামবেন। এদের মধ্যে রুবেল, মোসাদ্দেক ও লিটনের দলে ঢোকা নিশ্চিত। বিশ্রামে যাবেন মুস্তাফিজ ও মিরাজ। লিটন দলে ঢুকতে পারেন তামিমের জায়গায়। নাঈম হাসান, ইয়াসির আলী ও ফরহাদ রেজা দলে আসছেন না মোটামুটি নিশ্চিত। ফাইনালেও তাদের থাকার সম্ভাবনা নেই। ফলে আয়ারল্যান্ড থেকে খালি হাতেই দেশে ফিরতে হবে এ ত্রয়ীকে। তাসকিনের কপাল খুলতে পারে। অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা আজ বিশ্রামে থাকলে খেলতে পারেন তাসকিন।

একাদশে পরিবর্তন আসলেও দলের মূল লক্ষ্য জয়। আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ৯ ম্যাচে বাংলাদেশের জয় ৬টিতে। হেরেছে ২টিতে, ফল হয়নি ১ ম্যাচে। ২০১০ সালের পর আইরিশদের বিপক্ষে কখনো হারেনি বাংলাদেশ। জয়ের সেই রেকর্ড ধরে রাখতে মরিয়া বাংলাদেশ। এজন্য আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে আগামীকালের ম্যাচটিতেও বাংলাদেশ বেশ সিরিয়াস। ডাবলিনের ম্যালাহাইডে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় বিকাল পৌনে চারটায়।