তামিম-লিটন-সাকিবের ফিফটিতে বাংলাদেশের বড় জয়

তামিম-লিটন ও সাকিবের ফিফটিতে সহজেই আয়ারল্যান্ডকে ৬ উইকেটে হারালো বাংলাদেশ।

আয়ারল্যান্ডের দেয়া ২৯৩ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে তামিম ও লিটন দাসের ব্যাটে দুর্দান্ত শুরু পায় বাংলাদেশ। ওপেনিং জুটিতে এই দুইজন যোগ করেন ১১৭ রান। তামিম ৫৩ বলে ৫৭ ও লিটন ৬৭ বলে ৭৬ রান করেন।

এরপর সাকিবের সাথে ৬৪ রানের জুটি গড়েন মুশফিক। ৩৫ রান করে মুশফিক ফিরে যাওয়ার কিছুক্ষণ পরেই নিজের অর্ধশতক তুলে নেন সাকিব। তবে এক বাউন্সারে আঘাত পেয়ে হালকা ব্যাথা অনুভব করায় ৫১ বলে ৫০ রান করে রিটায়ার্ড আউট হন সাকিব। এরপর মোসাদ্দেক ও সাব্বিরকে নিয়ে বাকি কাজটা শেষ করেন মাহমুদউল্লাহ। তিনিব৩৫ রানে অপরাজিত থাকলে মাত্র ৪৩ ওভারেই ২৯২ রান চেজ করে ৬ উইকেটের জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ।

শুক্রবার ফাইনালে উইন্ডিজের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

এর আগে ডাবলিনে ত্রিদেশীয় সিরিজের গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে পল স্টার্লিংয়ের দুর্দান্ত সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশকে ২৯৩ রানের বিশাল টার্গেট দেয় আয়ারল্যান্ড।

টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ৫৯ রানের মধ্যে ২ উইকেট হারালেও তৃতীয় উইকেটে দুই অভিজ্ঞ আইরিশ ব্যাটসম্যান উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড ও পল স্টার্লিংয়ের ১৭৪ রানের বিশাল জুটিতে বড় সংগ্রহের দিকে আগায় আয়ারল্যান্ড।

এরই মাঝে নিজের শতক তুলে নেন স্টার্লিং। ৮ চার ও ৬ ছক্কায় ১৪১ বলে ১৩০ রান করে রাহির বলে আউট হয়ে ফিরে যান তিনি। তবে সেঞ্চুরি থেকে মাত্র ৬ রান দূরে থাকতে ৯৪ রানে ফিরে যান আইরিশ অধিনায়ক উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড।

একসময় মনে হচ্ছিল ৩০০ ছাড়িয়ে যাবে আইরিশদের স্কোর। তবে শেষ দিকে অন্যকোন ব্যাটসম্যান উল্লেখযোগ্য কোন রান না করতে পারলে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৮ উইকেটে ২৯২ রানে থামে আইরিশদের সংগ্রহ।

বাংলাদেশের আবু জায়েদ রাহি ৫ উইকেট লাভ করেন।