আইপিএল ত্যাগ করার আগে সাইডবেঞ্চে বসে থাকার লজ্জা নিয়ে মুখ খুললেন সাকিব!

বিপিএলের পরই ইনজুরিতে দীর্ঘদিন খেলার বাইরে সাকিব। মিস করেছেন টাইগারদের নিউজিল্যান্ড সফর। এরপর ইনজুরি থেকে ফিট হওয়ার সাথেই বিশ্বকাপ প্রস্তুতি হিসেবেই খেলতে গেলেন আইপিএল। কিন্তু মুদ্রার উল্টো পিঠ দেখছেন সাকিব। শুরুর এক ম্যাচ খেলার পর আর একাদশে দেখা যায়নি তাকে। সময় কাটাতে হচ্ছে সাইডবেঞ্চে বসেই। এমন ঘটনার পরও অবশ্য হায়দরাবাদকে দোষ দিচ্ছেন না সাকিব। বরং নিজের দুর্ভাগ্যকেই স্বীকার করছেন তিনি।

সম্প্রতি ইএসপিএন ক্রিকইনফোকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে এবারের আসরে নিজের খেলতে না পারার হতাশার কথা জানিয়ে সাকিব বলেন,

‘এবার তেমন খেলতে পারলাম না। খুব দুর্ভাগ্যজনক। কিন্তু একই সঙ্গে বলব বড় প্রেক্ষাপটে যদি দেখি এখানে বিদেশীরা সবাই খুব ভালো করছে। কাজেই এই অবস্থায় ম্যাচ পাওয়াটা কঠিন ছিল।’

চোট কাটিয়ে ফেরার পরই আইপিএল খেলতে যান সাকিব। ম্যাচ না পাওয়ায় অনুশীলন চালাতে দেশ থেকে উড়িয়ে নেন নিজের গুরু মোহাম্মদ সালাউদ্দিনকে। দুধের স্বাদ যেমন ঘোলে মেটে না, কেবল অনুশীলনে মন ভরার কথা না,সেই হতাশা তার কণ্ঠে,

‘বলতে পারি এটা দুর্ভাগ্যজনক, এটা হতাশাজনক। কিন্তু একই সঙ্গে আমাকে পরিস্থিতিটাও বুঝতে হবে। নেটে আমি আমার সেরাটা দিচ্ছি, স্কিল আর ফিটনেস নিয়ে প্রচুর খাটছি। বলতে পারি সুযোগের অপেক্ষায় আছি। সুযোগ পেলেই সেটা পুরো কাজে লাগাতে চাইব।’

অবশ্য সুযোগ এই বছর আর তেমন পাচ্ছেন না সাকিব। সম্ভবত ২১ এপ্রিল কলকাতা নাইট রাইডার্সের বিপক্ষে শেষ ম্যাচটি খেলবেন তিনি। কারণ বাংলাদেশ দলের বিশ্বকাপ ক্যাম্প শুরু হওয়ায় ২২ এপ্রিলেই দেশে ফিরতে হবে তাকে।