বাংলাদেশকে তাচ্ছিল্য করলেন ক্রিকেটের জীবন্ত কিংবদন্তি ব্রায়ান লারা

আর কয়েকদিন পরই বসতে যাচ্ছে ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় যজ্ঞ বিশ্বকাপ। ইংল্যান্ড-ওয়েলশের মাটিতে বসতে যাওয়া এই বিশ্বকাপের ডামাডোল বাজতে শুরু করেছে ইতিমধ্যেই। ভারত-ইংল্যান্ডের মত দলগুলোকে এবারের হট ফেবারিট মানছেন রথি-মহারথিরা৷ এই তালিকায় শোনা যাচ্ছে নিউজিল্যান্ড-দক্ষিণ আফ্রিকা-অস্ট্রেলিয়ার নামও। তবে সেভাবে উইন্ডিজকে হিসাবে ধরছেন না কেউই। তবে দেশটির সাবেক তারকা ব্যাটসম্যান, জীবন্ত কিংবদন্তি ব্রায়ান লারা বলছেন দলটি আনপ্রেডিকটেবল, করতে পারে যেকোন কিছুই। নিজেদের সামর্থ্য বোঝাতে গিয়ে কিছুটা তাচ্ছিল্য করলেন বাংলাদেশকে।

আনপ্রেডিকটেবল জিনিসটিই হতে পারে বিশ্বকাপে নিজেদের সেরা ফর্ম দেখানোর মূল শক্তি বলে মনে করেন সাবেক ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যান। ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগে (আইপিএল) ধারাভাষ্য দেওয়ার সুবাদে বর্তমানে ভারতে অবস্থান করা ব্রায়ান লারা ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলকে বিশ্বকাপের “বিস্ময় উপাদান” হিসেবেও আখ্যা দেন। ভারতীয় জনপ্রিয় সংবাদ মাধ্যম টাইমস অফ ইন্ডিয়াকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে লারা আরও জানান তার বিশ্বাস নিশ্চিতভাবেই সেমি ফাইনাল খেলবে টুর্নামেন্টের দুই হট ফেভারিট ভারত-ইংল্যান্ড।

র‍্যাংকিং মতে গত দুইবছরের বেশি সময় বাংলাদেশ থেকে পিছিয়েই আছে দলটি, অথচ নিজেদের শক্তি সামর্থ্যের ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে টেস্টের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ইনিংসের মালিক ছোট করেই দেখলেন বাংলাদেশকে। বাংলাদেশের কাছে হারকে এখনও তার চোখে আপসেটই মনে হয়। আর বিশ্বকাপে ভালো করতে এমন বিষয়গুলোই এড়িয়ে যেতে হবে বলে মনে করেন লারা।

সাম্প্রতিক সময়ে ইংল্যান্ড–ভারতকে হারানোর মাধ্যমে নিজেদের দিনে তারা যেকাউকেই হারাতে পারে বলে জানান দিয়েছেন উল্লেখ করে ৪৯ বছর বয়সী এই ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তী,

“ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ধারাবাহিক ভালো ক্রিকেট খেলতে হবে। নিজেদের দিনে আমরা যেকাউকে হারাতে পারি। আমরা দেখিয়েছি আমরা ভারত ইংল্যান্ডকে হারাতে পারি। আবার অন্যদিকে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানের মত দলের বিপক্ষেও হেরেছি। আর এসবই আমাদের এড়িয়ে যেতে হবে ভালো কিছু করার জন্য। ওয়েস্ট ইন্ডিজকে সেমি ফাইনালে দেখলে আনন্দিতই হব।”

গত দুটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সমর্থক ও অন্যান্য দলগুলোর মধ্যে একটা ভালো ধারণা তৈরি করেছে , তাই যেকোন দলই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে নামার আগে কিছুটা শঙ্কা নিয়ে নামবে বলেই ধারণা ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে ২২ হাজারের বেশি আন্তর্জাতিক রানের মালিকের,

“আমরা গত দুটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দিয়ে সবাইকে অবাক করে দিয়েছি। মানুষের মধ্যে আমাদের নিয়ে ভিন্ন ধারণা হতে শুরু করেছে আস্তে আস্তে। তাই আমার মনে হয়না খেলা শুরুর আগেই কেউ এখন ওয়েস্ট ইন্ডিজকে বাতিলের খাতায় ফেলবে না।”

অন্যদিকে ওয়ানডে র‍্যাংকিংয়ের বর্তমান এক নম্বর দল ও ২০১৯ বিশ্বকাপের স্বাগতিক দল ইংল্যান্ড এবং ভারতকে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে নিশ্চিতভাবেই দেখবেন বলে জানান লারা,

“ইংল্যান্ডকে নিয়ে আসলে আমি ঝুঁকি নিতে চাইনা কারণ তারা যেকোন গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে গিয়ে হেরে বসে, তবে এবারের দলটা অন্যরকম লাগছে। তাই এদের (ইংল্যান্ড) ও ভারতের সেমিফাইনাল খেলা নিশ্চিতই বলা যায়।”

প্রসঙ্গত, ৩১ মে নটিংহামে পাকিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিশ্বকাপ মিশন শুরু হবে।