পর্তুগালে নতুন রোনালদোর আগমণ!

photo: Collected

মাত্র ১৯ বছর বয়স। এই বয়সেই ‘নতুন রোনালদো’ খেতাব পেয়েছেন বেনেফিকার পর্তুগিজ ফরোয়ার্ড জোয়াও ফেলিক্স। তাকে নিয়ে ইতিমধ্যে ফুটবলবিশ্বে হইচই শুরু হয়েছে। যা থামাতে বেনফিকার কোচ ব্রুনো লাজ রীতিমতো কাকুতি মিনতিই করেছেন, ‘ওকে এখনই মহাতারকা বানাবেন না।’

গতকাল ফ্রাঙ্কফুর্টের বিপক্ষে হ্যাটট্রিক করেছেন জোয়াও ফেলিক্স। পেশাদার ক্যারিয়ারের প্রথম হ্যাটট্রিক এ উইঙ্গারের। কিন্তু সে হ্যাটট্রিক করার জন্য সবচেয়ে বড় উপলক্ষটাকেই বেছে নেওয়ায় রেকর্ড হয়ে গেল। ১৯ বছর ৫ মাস ১ দিন বয়সের কমে যে ইউরোপা লিগে কেউ হ্যাটট্রিক করেননি।

ফেলিক্সকে নিয়ে এ মৌসুমে অনেক আলোচনাই হচ্ছে। উইং থেকে বক্সের কাছে এসে দারুণ সব শট করতে পারেন, দুর্দান্ত ড্রিবলিং ক্ষমতা, গোলের পথটাও চেনা, তায় পর্তুগিজ নতুন রোনালদো ট্যাগ পেতে সময় লাগেনি। ইউরোপের বড় বড় সব দলগুলোর সঙ্গে দলবদলের গুঞ্জনও শুরু হয়ে গেছে মৌসুমের মাঝপথেই।

তবু কালকের পারফরম্যান্সের জন্য প্রস্তুত ছিলেন না কেউই। ম্যাচের প্রথম ঘণ্টার মাঝেই হ্যাটট্রিক করে ফেলেছেন ফেলিক্স। ২১ থেকে ৫৪ মিনিটে করা এই তিন গোলের মাঝে বেনফিকা পেয়েছে আরও একটি গোল।

ফেলিক্সের পারফরম্যান্সে প্রতিপক্ষ কোচও মুগ্ধ। প্রতিপক্ষের মাঠে ৪-২ গোলের হারের পর ফ্রাঙ্কফুর্ট কোচ আডি হুটার মেতেছেন ফেলিক্স বন্দনায়, ‘জোয়াও ফেলিক্স খুবই বুদ্ধিমান খেলোয়াড়। সে খেলা সৃষ্টি করে, সেটার সফল পরিণতিও টানে। বেনফিকার ভাগ্য ভালো, ওর মতো একজন আছে। সে বিরল প্রতিভা। দ্বিতীয় লেগে ওর প্রতি বাড়তি মনোযোগ দিতে হবে।’