স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা জানালেন ক্রিকেটাররা..

আজ ২৬ মার্চ। বাংলাদেশের ৪৯ তম স্বাধীনতা দিবস। বলা যায় ৪৯ তম জন্মদিন আজ। ১৯৭১ সালের আজকেই এই দিনে লাখো শহীদের রক্তের বিনিময়ে প্রথম স্বীধীনভাবে সবুজের বুকে উড়েছিল লাল পতাকা। তাই আজকের এ দিনে সেই সকল বীরদের স্বরণ করে থাকেন দেশের সকল শ্রেণী পেশার মানুষ। মাশরাফি-মুশফিকরাও এর ব্যতিক্রম নয়। এই জাতীয় দিবসে বীরদের স্বরন করে স্বাধিনতার শুভেচ্ছা জানিয়েছেন তারাও।

বাংলাদেশ ওয়ানডে দলের অধিনায়ক ও এমপি মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা ১৯৭১ সালে আত্মত্যাগীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ফেসবুকে বিশেষ বার্তা দিয়েছেন। তিনি লিখেছেন, ‘সবাইকে মহান স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা।’

এখন আইপিএল খেলতে ব্যস্ত বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। এবার বাংলাদেশের একমাত্র প্রতিনিধি তিনি। খেলছেন সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে। সেখান থেকেই মহান স্বাধীনতা দিবসে বিশেষ বার্তা দিয়েছেন টাইগারদের টেস্ট ও টি-টুয়েন্টি অধিনায়ক।

ফেসবুকে লিখেছেন, স্বাধীনতার ৪৯তম বছরে আমি সালাম জানাই তাদের, যারা আমাদের মাতৃভূমির জন্য দিয়েছেন প্রাণ। তাদের আত্মত্যাগের গল্পগুলো দিয়ে গাঁথা আমাদের এই মহান পতাকা। সেই গল্পগুলো অমর হয়ে থাকবে ইতিহাসের পাতায় এবং লাখো বাঙালির হৃদয়ে।

তিনি আরো লিখেছেন, যে দেশ নিয়ে আমরা গর্ব করি, সে দেশটিকে স্বাধীনতা এনে দেয়ার জন্য আমরা তাদের প্রতি আজন্ম ঋণী থাকবো। আসুন, আমরা আমাদের কাজ দিয়ে সেই মহান পতাকার মর্যাদা অক্ষুণ্ণ রাখি। সকলকে জানাই মহান স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা।

অলরাউন্ডার মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ লিখেছেন,সবাইকে মহান স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা। স্বাধীনতার জন্য আত্মত্যাগীদের তরে শ্রদ্ধা।

পেসার তাসকিন আহমেদ তার বার্তায় বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের শহীদদের কখনো ভোলা যাবে না। তিনি লিখেছেন, ‘এটা আমাকে গর্বিত করে যে আমি এই মহান দেশের নাগরিক। আমাদের দেশের জন্য যারা জীবন দেয়া বীরদেরকে কখনো ভোলা যাবে না। সবাইকে স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা।’

ওপেনার এনামুল হক বিজয় বাংলাদেশি হিসেবে নিজেকে গর্বিত মনে করেন জানিয়ে বার্তা দিয়েছেন, ‘সবাইকে স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা। একজন বাংলাদেশি হিসেবে গর্ববোধ করি।’

সাবেক অধিনায়ক মুশফিকুর রহিমও সবাইকে স্বাধীনতা দিবসের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। দেশের পতাকায় নিজেকে মুড়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছবি দিয়েছেন মুশফিক।