রোমাঞ্চকর ম্যাচে শেষ বলে ছক্কা হাঁকিয়ে শেখ জামালকে জেতালেন এনামুল

ছবি: সংগ্রহিত

রোমাঞ্চকর ম্যাচে ব্যবধান গড়ে দিলেন এনামুল হক। শেষ বলে ছক্কা হাঁকিয়ে অভিজ্ঞ এই অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের বিপক্ষে শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাবকে এনে দিলেন নাটকীয় জয়।

ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের পঞ্চম রাউন্ডে ২ উইকেটে জিতেছে নুরুল হাসান সোহানের দল। ২৪১ রানের লক্ষ্য শেষ বলে ছক্কা হাকিয়ে দারুন জয় তুলে নেয় তারা।

জয়ের জন্য শেষ ওভারে ১২ রান প্রয়োজন ছিল শেখ জামালের। আলাউদ্দিন বাবুর করা সেই ওভারে প্রথম পাঁচ বলে ছয় রান নিতে পারে দলটি। হার এড়াতে অন্তত চার রান প্রয়োজন ছিল শেখ জামালের। পেসার আলাউদ্দিনকে ছক্কায় উড়িয়ে জয় সঙ্গে করে ফিরেন এনামুল।

বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে শুক্রবার টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি মোহামেডানের। দ্রুত ফিরেন ইরফান শুক্কুর। রানের খাতা খুলতে পারেননি তুষার ইমরান।

আগের ম্যাচে মন্থর ব্যাটিংয়ে পঞ্চাশ ছোঁয়ার পর বোলারদের ওপর চড়াও হয়ে কিছুটা পুষিয়ে দিতে পেরেছিলেন আব্দুল মজিদ। এবার ৮৮ বলে পঞ্চাশ ছোঁয়ার পর ফিরে যান দ্রুত। ৯০ বলে খেলা তার ৫২ রানের ইনিংস গড়া তিন ছক্কা ও এক চারে।

রানের গতি বাড়ানোর কাজটা করেন চতুরঙ্গা ডি সিলভা। শ্রীলঙ্কান অলরাউন্ডার ৩৯ বলে চারটি চার ও দুটি ছক্কায় ফিরে যান ৪৯ রান করে। অফ স্পিনিং অলরাউন্ডার সোহাগ গাজী ২৪ বলে খেলেন ৩২ রানের আক্রমণাত্মক ইনিংস। তাতে লড়াইয়ের পুঁজি পায় মোহামেডান।

শেখ জামালের বাঁহাতি পেসার সালাউদ্দিন শাকিল ৩ উইকেট নেন ৪১ রানে।

রান তাড়ায় তানবীর হায়দারের সঙ্গে ৫৫ ও নাসির হোসেনের ৪৯ রানের দুটি ভালো জুটিতে দলকে ২ উইকেটে ১৪৩ রানের দৃঢ় ভিতের ওপর দাঁড় করান ইমতিয়াজ হোসেন।

দলকে এগিয়ে নেওয়া অভিজ্ঞ এই ওপেনারকে থামান বাঁহাতি স্পিনার নিহাদ। ইমতিয়াজের ১০২ বলে খেলা ৭৪ রানের দায়িত্বশীল ইনিংস গড়া ১০টি চারে।

আসেলা গুনারত্নের সঙ্গে ৫৩ রানের জুটিতে দলকে টানেন অধিনায়ক সোহান। পরপর দুই বলে এই দুই থিতু ব্যাটসম্যান ফিরে গেলে পাল্টে যায় ম্যাচের চিত্র। তবে জিয়াউর রহমান ও এনামুল ছিলেন বলে সম্ভাবনায় এগিয়ে ছিল শেখ জামালই।

জিয়ার দ্রুত বিদায়ের পর কঠিন হয়ে যাওয়া সমীকরণটা মেলান এনামুল। তার ১৭ বলে ২৮ রানের ছোট কিন্তু কার্যকর ইনিংসে শেখ জামাল পৌঁছে যায় জয়ের বন্দরে।

দায়িত্বশীল ফিফটির জন্য ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন ইমতিয়াজ।

পাঁচ ম্যাচে দ্বিতীয় জয় পেল শেখ জামাল। টানা দ্বিতীয় ম্যাচে হারল মোহামেডান।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
মোহামেডান: ২৪০ (৪৯.১)
(শুক্কুর ১৭, মজিদ ৫২, তুষার ০, রকিবুল ১৪, আশরাফুল ৪৪, ডি সিলভা ৪৯, নাদিফ ৫, সোহাগ ৩২, আলাউদ্দিন ৩, শফিউল ১০, নিহাদ ১১*; নাসির ১/৩২, তাইজুল ১/৫২, গুনারত্নে ২/৫২, তানবীর ১/২১, শাকিল ৩/৪১, এনামুল ১/১৪)

শেখ জামাল ধানমণ্ডি ক্লাব: ২৪২/৮ (৫০)
(ইমতিয়াজ ৭৪, হাসান ৫, তানবীর ৩৯, নাসির ২৫, গুনারত্নে ২০, সোহান ৩২, জিয়া ৬, এনামুল ২৮*, তাইজুল ৩, শাকিল ১*; শফিউল ০/৫৪, ডি সিলভা ২/৩৬, সোহাগ ৩/৪৩, নিহাদ ১/৪৯, আশরাফুল ১/৩২, আলাউদ্দিন ০/২১, তুষার ০/৭)