ঘরের মাঠে লংকান পেসে লন্ডভন্ড প্রোটিয়া ব্যাটসম্যানরা

ডারবানে টেস্টের মধ্য দিয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ শুরু করেছে শ্রীলঙ্কা। আগে ফিল্ডিং করতে নেমে প্রথম দিনেই লংকান পেসের তোপে পড়ল প্রোটিয়ারা। তবে ডিককের লড়াইয়ে শেষপর্যন্ত ২৩৫ রান করে স্বাগতিকরা

টস জিতে আজ আগে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন শ্রীলঙ্কা অধিনায়ক দিমুথ করুনারত্নে। আগে ব্যাট করতে নেমে নিজেদের মাঠে ২৩৫ রানে অলআউট হয়েছে প্রোটিয়ারা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১ উইকেটে ৪৯ রান করে প্রথম দিনের খেলা শেষ করেছে শ্রীলঙ্কা। দ্বিতীয় দিনে ব্যাটিংয়ে নামার আগে ১৮৬ রানে পিছিয়ে সফরকারীরা।

প্রতিপক্ষের আমন্ত্রণে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভয়াবহ ছিল দক্ষিণ আফ্রিকার। বাম হাতি পেসার বিশ্ব ফার্নান্দোর তোপে উইকেট হারাতে থাকে দলটি। এমন দুঃসময়ে মিডলঅর্ডারে কুইন্টন ডি ককের কাছ থেকে লড়াকু ইনিংসটি না আসলে বড় লজ্জায় পড়তে হতো স্বাগতিকদের। দলের হয়ে ৯৪ বলে ৮০ রানের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ইনিংসটি খেলেন তিনি। তার সঙ্গে টেম্বা বাভুমা করেন ৪৭ রান।

এর আগে ইনিংসের শুরুতে ৯ রানেই ডিন এলগার ও হাশিম আমলার উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা। ১৭ রানের মাথায় আউট হয়ে যানে আরেক ওপেনার অ্যইডেন মারক্রামও। এরপর টেম্বা বাভুমা এবং ফাফ ডু প্লেসি রুখে দাঁড়ান। তারা দু’জন ৭২ রানের জুটিতে দলের বিপর্যয় কিছুটা সামাল দেন।

দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে ৩৫ রান করে আউট হন ডু প্লেসি। কেশব মাহরাজ করেন ২৯ রান। তাদের সঙ্গে ডেল স্টেইনের ১৫ রানের সুবাধে ৫৯.৪ ওভারে অলআউট হয় স্বাগতিকরা।

বল হাতে শ্রীলঙ্কার হয়ে ১৭ ওভারে ৬২ রান দিয়ে ৪ উইকেট নেন ফার্নান্দো। আরেক পেসার কাসুন রাজিথা নিয়েছেন ৩ উইকেট। সুরাঙ্গা লাকমাল এবং অভিষিক্ত লাসিথ এম্বুলদেনিয়া নেন ১টি করে উইকেট।

জবাবে ১৯ রানের মাথায় একটি উইকেট হারায় শ্রীলঙ্কা। এ সময় ব্যক্তিগত শূন্য রানে আউট হয়ে যান লাহিরু থিরিমান্নে। এরপর আর কোনো বিপদ ছাড়াই দিন শেষ করতে সক্ষম হয় লঙ্কানরা। ২৮ রান নিয়ে করুনারত্নে এবং ১৭ রান নিয়ে অভিষিক্ত ওসাদা ফার্নান্দো আগামীকাল ব্যাটিংয়ে নামবেন।