শেষ ম্যাচে জয়ে ঢাকাকে নামিয়ে পয়েন্ট টেবিলের চারে রাজশাহী

গ্রুপ পর্বে নিজেদের শেষ ম্যাচে সিলেট সিক্সার্সকে ৫ উইকেটে হারিয়েছে রাজশাহী কিংস। দুর্দান্ত এ জয়ে ১২ ম্যাচ খেলে ৬ জয়ে ১২ পয়েন্ট টেবিলের চারে উঠে এসেছে মিরাজরা। সেই সাথে প্লে-অফের আশা বাঁচিয়ে রাখলো রাজশাহী। অন্যদিকে এক ম্যাচ আগেই বিপিএল থেকে ছিটকে গেলো সিলেট সিক্সার্স।

সিলেটের দেওয়া ১৯০ রানের বড় টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ওপেনার জাকির কে হারায় রাজশাহী। কিন্তু পরবর্তীতে ভালো পার্টনারশিপ গড়েন চার্লস-নাফিস। কিন্তু দলীয় ৫৬ রানে নাফিস বিদায় নিলে পরক্ষনেই ২৬ বলে ৩৯ রান করে ফিরেন যান চার্লস।

এরপর কিছুটা রানের গতি মন্হর হলেও কয়েক ওভার আবারো দ্রুত গতিতে রান তুলনে থাকেন টেনডসকাট এবং লরি ইভান্স। দুজনে গড়েন ১১১ রানের ঝড়ো পার্টনারশিপ। এতেই জয়ের সুভাস পায় রাজশাহী। ১৭তম ওভারে টেনডসকাট ৪২(১৮) এবং ইভান্স ৭৬(৩৬) আউট হলেও পরবর্তীতে কোন বিপদ ছাড়াই ২ ওভার বাকি থাকতেই ৫ উইকেটের জয় পায় মিরাজরা।

এর আগে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেম নিকলস পুরানের অপরাজিত মাত্র ৩১ বলে ৭৬ রান ও সাব্বির রহমানে ৩৯ বলে ৪৫ রানে ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১৮৯ রান করে সিলেট। পুরান তার ৭৬ রানের জন্য ৬ টি বিশাল ছক্কা ও ৬ টি বাউন্ডারি মারেন। এছাড়া আফিফের ব্যাট থেকে আসে ২৯ রান।

রাজশাহীর পক্ষে কামরুল রাব্বি ২ টি উইকেট নেন।

রাজশাহী কিংস একাদশ:
লরি ইভান্স, সৌম্য সরকার, মোমিনুল হক, ফজলে মাহমুদ, কায়েস আহাম্মেদ, ক্রিশ্চিয়ান জঙ্কার, জনসন চালর্স, মেহেদী হাসান মিরাজ (অধিনায়ক), আরাফাত সানি, কামরুল ইসলাম রাব্বি, মুস্তাফিজুর রহমান।

সিলেট সিক্সার্স একাদশ:
লিটন দাস, আফিফ হোসেন, জেসন রয়, সাব্বির রহমান, নিকোলাস পুরান, মোহাম্মদ নওয়াজ, আলক কাপালী (অধিনায়ক), সোহেল তানভীর, তাসকিন আহমেদ, নাবিল সামাদ, ইবদাত হোসেন।