একটা উইকেট পড়লে ঠিক ছিল : তাইজুল

১৪ ওভারে দলীয় ফিফটি তামিম-ইমরুলের ব্যাটে। শ্রীলঙ্কার চেয়ে ২০০ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করা বাংলাদেশের শুরুটা তাতে হল দুর্দান্তই। গ্যালারির দর্শকদের করতালিতে জহুর আহমেদের তখনকার সময়টা মুখর থাকল। ওপেনিং জুটি ঘিরে যখন আশা বাড়ছে, তখনই উইকেট বিলিয়ে এলেন ইমরুল। পরে তামিম ও মুশফিক শেষ বিকেলে ফেরায় ম্যাচ বাঁচানো নিয়েই শঙ্কা জেগেছে।

৩ উইকেটে ৮১ রান তুলে চতুর্থ দিন শেষ করেছে বাংলাদেশ। এখনও ১১৯ রানে পিছিয়ে আছে। সামনে পুরো একটি দিন। শেষ বিকেলে তিন উইকেট হারানো বড় ধাক্কাই। দিনের খেলা শেষে সংবাদ সম্মেলনে আসা তাইজুলও মনে করেন দুটি উইকেট বেশি পড়ে গেছে বাংলাদেশের, ‘আমার কাছে মনে হয় একটা উইকেট পড়লে ঠিক ছিল, তিনটা উইকেট বেশি হয়ে গেছে।’

অফস্পিনার দিলরুয়ানের বল লেন্থ বিচার না করেই সুইপ করতে গিয়ে শর্টলেগে ক্যাচ দেন ইমরুল (১৯)। অন্য ওপেনার তামিম ফিরেছেন ৪১ রানে। সান্দাকানের বলে উইকেটরক্ষক ডিকেভেল্লার গ্লাভসে ধরা পড়েছেন। বড় আক্ষেপ ছিল হেরাথের বলে মুশফিকের আউট। দিনের শেষ ওভারে উইকেট অক্ষত না রাখতে পেরে হতাশা বাড়িয়েছেন এই ডানহাতি।

সাধারণ বোলিং করেই অসাধারণ তিনটি উইকেট পেয়ে চট্টগ্রাম টেস্টে জয়ের পথ তৈরি করে ফেলেছেন লঙ্কান তিন স্পিনার। তবে বাংলাদেশের বাঁহাতি স্পিনার তাইজুল মনে করেন আহামরি বল করেনি শ্রীলঙ্কানরা।

‘ওরা যে খুব ভাল বোলিং করেছে, তা আমি বলবো না। সেটা করলে এতটুকু সময়ের মধ্যে আমরা ৮০ রান করতে পারতাম না। যেগুলো ভাল জায়গায় বল হয়েছে, তাতে ওরা সফল ছিল। আমাদের উইকেট পড়ে গেছে। এজন্য মনে হচ্ছে ওরা ভাল বোলিং করছে। আমি ও রকম মনে করি না।’