এক ওভারে সাত বল : নতুন করে ম্যাচ খেলতে প্রস্তুত সিলেট সিক্সার্স

সিলেট সিক্সার্স-রংপুর রাইডার্স ম্যাচের ১৬তম ওভার তখন। টানটান উত্তেজনাকর ওই পরিস্থিতিতে সিলেটের পেসার কামরুল ইসলাম রাব্বিকে ওভার শেষ হওয়ার পরও একটি বল বেশি করতে হয়েছে। এ ব্যাপারে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল বরাবর লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছে সিলেট সিক্সার্স কর্তৃপক্ষ। গভর্নিং কাউন্সিল থেকে বলা হয়েছে, বিষয়টি ‘সুষ্ঠু তদন্ত’ করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

ওই এক বলের জন্যই যে ম্যাচ হেরেছে, এমনটা অবশ্য মনে করছে না সিলেট। তবে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল সবদিক বিবেচনা করে যদি পুনরায় ম্যাচটি খেলানোর সিদ্ধান্ত নেয়, তাতে রাজি সিলেট সিক্সার্স। এ ব্যাপারে ফ্র্যাঞ্চাইজিটির প্রধান নির্বাহী ইয়াসির ওবায়েদ বাংলা ট্রিবিউনকে বলেছেন, ‘ওই এক বল কম হলেই যে আমরা ম্যাচ জিততাম, এমন কোনও দাবি করছি না। আমরা চাচ্ছি বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল যখন মিটিং করবে, তখন এটা মাথায় রাখবে এবং বিষয়টা বিশ্লেষণ করে তদন্ত করবে।’

সঠিক সিদ্ধান্ত আসবে বলেই আশাবাদী সিলেটের এই কর্তা, ‘আশা করছি সঠিক সিদ্ধান্ত আসবে, যেটা পরবর্তীতে একটা দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে। বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল যদি আমাদের পুনরায় ম্যাচ খেলার প্রস্তাব দেয়, তাহলে আমরা অবশ্যই হাসিমুখে খেলব।’

১৬তম ওভারের তৃতীয় বলে সামিউল্লাহ শেনওয়ারি রান আউট হয়ে ফিরে যাওয়ার পর ক্রিজে ছিলেন রবি বোপারা আর মাশরাফি বিন মুর্তজা। শেষ পর্যন্ত অধিনায়ক মাশরাফির অপরাজিত ১৭ রানে নাটকীয় জয় পায় রংপুর।

উত্তেজনাপূর্ণ এই ম্যাচে বল বেশি করার ভুল থার্ড আম্পায়ারের কাছে বলার পরও কিভাবে সেটি ঠিক হলো না, সেই প্রশ্নও তুলেছেন ইয়াসির, ‘আমরা এখনও মনে করছি এটা একটা ভুল। কিন্তু এটা মনে করছি না যে এই ভুল আমাদের ম্যাচের ফলের ওপর প্রভাব ফেলেছে। যে কারও পক্ষেই একটা ভুল হতে পারে।’ সঙ্গে যোগ করলেন, ‘কিন্তু ব্যাপারটি থার্ড আম্পায়ারের কাছে বলে চেক করানোর পরও এমন ভুল কী করে হয়। যে কোনও পরিস্থিতিতে ৭ বল করানো একটা বড় বিষয়। আর বলটা করার আগেও আমরা তুলে ধরেছি।’

ঢাকা পর্ব শুরুর আগে পয়েন্ট টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে সিলেট। ১০ ম্যাচ শেষে ৩ জয় ও ৬ হারে নাসির হোসেনদের পয়েন্ট ৭।