রেকর্ড পরিমাণ বেতন বাড়তে যাচ্ছে কোহলিদের!

কিছুদিন আগেই ভারতীয় ক্রিকেটারদের বার্ষিক বেতন দ্বিগুণ হয়েছে। কোহলি ধোনিরা বছরে বোর্ড থেকে বেতন পান ২ কোটি রুপি। কিন্তু এই বেতনেও চলবে না তাদের, ভারতীয় বোর্ডকে সাফ জানিয়ে দেন কোহলিরা। বেতন বাড়াও নইলে বড় ধরনের অন্দোলন। ক্রিকেটারদের পক্ষ থেকে এমন ঘোষণা আসার পর আলোচনায় বসতে রাজি হয়েছে ভারতীয় বোর্ড।

ভারতে গ্রেড ‘এ’ ক্রিকেটাররা পাচ্ছেন বছরে দু’কোটি রুপি।এর সঙ্গে ম্যাচ ফির অংশ থাকে। সব মিলিয়ে বোর্ডের চুক্তি থেকে কোহালির মতো সেরা তারকাও মেরেকেটে পেতে পারেন চার থেকে পাঁচ কোটি রুপি। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেটারদের তুলণায় এ বেতন অনেক কম।

হিসেব অনুযায়ী, অস্ট্রেলিয়ার স্টিভ স্মিথ বা ইংল্যান্ডের জো রুট তাঁদের দেশের বোর্ডে থেকে বছরে অন্তত দশ কোটি টাকা পারিশ্রমিক পান। কোহালিরা তার অর্ধেকও পান না। অথচ বিশ্ব মঞ্চে কোহালি, ধোনিরাই ক্রিকেটের বাজার। অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ে কয়েকগুণ বেশি ধনী ভারতীয় বোর্ড। কিন্তু বোর্ডের পারিশ্রমিকে পিছিয়ে ভারতীয় ক্রিকেটাররা।

অস্ট্রেলিয়া বা ইংল্যান্ডে যেমন বোর্ডের উপার্জনের ২৬ শতাংশ ভাগ করে দেওয়া হয় ক্রিকেটারদের মধ্যে। সেটাই সাধারণ নিয়ম। ভারতে অভিযোগ উঠেছে, বোর্ড কর্তারা ভোটের রাজনীতি জিইয়ে রাখার উদ্দেশে ক্রিকেটারদের প্রাপ্য টাকা কমিয়ে রাজ্য সংস্থাগুলোর কোষাগার ভরেছেন।

দিন দিন আরো টাকার কুমির হচ্ছে ভারতীয় বোর্ড। সেপ্টেম্বরেই ‘স্টার ইন্ডিয়া’র সঙ্গে চুক্তি করেছে বিসিসিআই। যার ফলে ২০১৮ থেকে ২০২২ সাল পর্যন্ত ক্রিকেট বোর্ড চ্যানেল থেকে পাবে ২.৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। এ চুক্তির পর অরো বেশি উত্তাল কোহলিরা। ভারতীয় বোর্ডও অনেকটা নমনীয় এখন।

ভারতীয় মিডিয়া বলছে, নয়াদিল্লিতে ভারত বনাম শ্রীলঙ্কার তৃতীয় টেস্টের সময়েই ক্রিকেটারদের পরিবর্তিত আর্থিক চুক্তি নিয়ে শীর্ষ বৈঠক হতে চলেছে। সভায় ক্রিকেটারদের প্রতিনিধি হিসেবে প্রধান মুখ হিসেবে থাকবেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহালি। তাঁর সঙ্গে থাকতে পারেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনিও।

সব কিছু ঠিকঠাক চললে, বিরাট কোহালিদের হাত ধরে ভারতীয় ক্রিকেটারদের জীবনে নজিরবিহীন আর্থিক বিপ্লব ঘটতে চলেছে। যার জেরে শুধু কোহালিরাই নন, লাভবান হতে চলেছেন দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের অসংখ্য খেলোয়াড়ও।