নতুন চুক্তিতে নেইমারকে ছাড়িয়ে সর্বোচ্চ বেতনের রেকর্ড গড়লেন মেসি

বার্সেলোনার সঙ্গে নতুন চুক্তি করেছেন লিওনেল মেসি। ২০২১ সাল পর্যন্ত তিনি বার্সেলোনায়ই থাকছেন। নতুন চুক্তিতে তার বেতন ভাতাও বৃদ্ধি পেয়েছে। তাতে আবারো তিনি ফুটবল বিশ্বের সর্বোচ্চ বেতনভুক্ত খেলোয়াড় হয়েছেন।


মেসির সঙ্গে চুক্তির নতুন শর্ত কী তা কোনো পক্ষই প্রকাশ করেনি। শুধু বার্সার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, মেসির নতুন রিলিজ ক্লজ নির্ধারণ করা হয়েছে ৭০০ মিলিয়ন ইউরো (প্রায় সাত হাজার কোটি টাকা)। তবে মেসির বার্ষিক পারিশ্রমিক কত সেটা আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়নি।

আনুষ্ঠানিকভাবে না জানানো হলেও, স্প্যানিশ মিডিয়া তারা ঠিকই খুঁজে বের করে ফেলেছে, বার্ষিক কত করে পারিশ্রমিক পাচ্ছেন মেসি! সেই তথ্য প্রকাশ্যে আসতেই সবার চোখ ছানাবড়া। ফুটবল ইতিহাসে সব পারিশ্রমিকের রেকর্ড ছাড়িয়ে গেলেন মেসি।

মাদ্রিদভিত্তিক জনপ্রিয় ক্রীড়া দৈনিক বিশ্বের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিকপ্রাপ্ত ফুটবলারদের একটা তালিকা প্রকাশ করেছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে বার্ষিক ৪৩ মিলিয়ন ইউরো (চার কোটি ৩০ লাখ ইউরো, ৪৩০ কোটি টাকা) পারিশ্রমিক পাচ্ছেন মেসি।
মেসির বেতন ৩০ মিলিয়ন ইউরো। তার সঙ্গে অন্যান্য সুযোগ-সুবিধাদি মিলিয়ে ৪৩ মিলিয়ন ইউরো পাবেন। এর মধ্য দিয়ে সর্বোচ্চ বেতনভুক্ত ফুটবলারদের তালিকায় শীর্ষে অবস্থান নিয়েছেন তিনি। ৩৮ মিলিয়ন ইউরো নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে আছেন তার স্বদেশী খেলোয়াড় কার্লোস তেভেজ। বর্তমানে তিনি চীনের ক্লাব সাংহাই সিনহুয়ার হয়ে খেলছেন।

৩৬ মিলিয়ন ইউরো নিয়ে তৃতীয় স্থানে আছেন বার্সেলোনা ছেড়ে প্যারিস সেইন্ট জার্মেইতে যোগ দেওয়া নেইমার দ্য সিলভা। ৩৪ মিলিয়ন ইউরো নিয়ে এই তালিকায় চতুর্থ স্থানে আছেন রিয়াল মাদ্রিদের তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। ২৪ মিলিয়ন ইউরো নিয়ে পঞ্চম স্থানে আছেন ব্রাজিলের অস্কার। তিনি বর্তমানে সাংহাই এসআইপিজির হয়ে খেলছেন।

এ ছাড়া ২৩ মিলিয়ন ইউরো নিয়ে গ্যারেথ বেল রয়েছেন ষষ্ঠ স্থানে। সমান পরিমাণ আয় করে আর্জেন্টিনার ইজাকুয়েল লাভেজ্জি রয়েছেন সপ্তম স্থানে। ২০ মিলিয়ন নিয়ে ব্রাজিলের হাল্ক রয়েছেন অষ্টম স্থানে। পল পোগবা ১৭ মিলিয়ন ইউরো নিয়ে রয়েছেন নবম স্থানে। আর ১৫ মিলিয়ন ইউরো নিয়ে ইতালিয়ান খেলোয়াড় গ্রাজিয়ানো পেলে রয়েছেন দশম স্থানে। তিনি চীনের ফুটবল ক্লাব শাংডং লুনেংয়ের হয়ে খেলছেন।