খেলবেন নাকি শহরে ঘুরে বেড়াবেন স্টোকস!

ঝামেলায় রয়েছেন ইংল্যান্ডের অলরাউন্ডার বেন স্টোকস। ব্রিস্টলে নাইট ক্লাবের বাইরে মারামারিতে জড়িয়ে পড়ার পর থেকেই সমালোচনা শুনতে হচ্ছে। ঝামেলায় থাকা এই অলরাউন্ডার অ্যাশেজ দলে জায়গা হারান। নতুন খবর হলো, নিউজিল্যান্ডের ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলতে গিয়েছেন স্টোকস।

২৬ বছর বয়সী স্টোকস ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডের (ইসিবি) কাছ থেকে অনাপত্তিপত্র নিয়েছেন বলে খবরে জানানো হয়। নিউজিল্যান্ডের ঘরোয়া ওয়ানডে ক্রিকেট ফোর্ড কাপে ক্যান্টাবুরির জার্সিতে খেলার কথা স্টোকসের।

তবে, নাম প্রকাশ না করার শর্তে বোর্ডের এক কর্তা জানিয়েছেন, ইংল্যান্ডে থেকে হাঁপিয়ে ওঠার কারণেই নিউজিল্যান্ডে পরিবার নিয়ে গিয়েছেন স্টোকস। বোর্ডের অফিসিয়াল কোনো অনুশীলন ক্যাম্পে জায়গা না পাওয়ার হতাশা ভুলতে পারিবারিক সফরে বের হয়েছেন তিনি। সেখানে খেলাটা তার কাছে মূখ্য বিষয় নয়।

ক্যান্টাবুরির সিইও জেরেমি ক্রুইন জানান, ‘স্টোকস আমাদের দলের হয়ে খেলতে এসেছে। তার ব্যাপারে বিশেষ করে তার পুলিশি তদন্তের ব্যাপারে আমরা সচেতন আছি। দেশে ফিরতে চাইলে যেকোনো সময়ই আমরা তাকে ইংল্যান্ডে ফিরে যাবার অনুমতি দেব। ইংল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড থেকে যেভাবে আমাদের গাইডলাইন দেওয়া হয়েছে সেভাবেই সব কিছু হবে।’

মারামারির ঘটনায় গ্রেফতার হলেও পূর্ণ তদন্তের জন্য ছেড়ে দেওয়া হয় স্টোকসকে। সেই ঘটনার ভিডিও ফুটেজ দেখার পর স্টোকস ও অ্যালেক্স হেলসকে অনির্দিষ্টকালের জন্য বহিষ্কার করে ইসিবি। হেলসও সে সময় স্টোকসের সঙ্গে ছিলেন। পরে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বোর্ড জানায়, পরবর্তী ঘোষণা না দেওয়া পর্যন্ত ইংল্যান্ড দলে বিবেচনা করা হবে না স্টোকস এবং হেলসকে।

অনাকাঙ্ক্ষিত আচরণের দায়ে অতীতেও শাস্তিমূলক ব্যবস্থার সম্মুখীন হয়েছিলেন স্টোকস। ২০১২ সালে এক রাতে গ্রেফতার হওয়ার পর তাকে সতর্ক করে দেয় পুলিশ। পরের বছরই গভীর রাতে মদ্যপান করায় লায়ন্স ট্যুর থেকে তাকে দেশে ফেরত পাঠানো হয়। ২০১৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তো নিজের কারণেই ছিটকে যান। লকারে ঘুষি মেরে হাতের ইনজুরির শিকার হন।

শুধু তাই নয়, বাংলাদেশ সফরে এসে তামিম ইকবালের সঙ্গে শুধু শুধুই বিবাদে জড়িয়েছিলেন। আলোচিত ঘটনার মধ্যে আছে, টেস্ট হারের পথে স্টোকসকে সাজঘরে ফেরত পাঠানোর সময় সাকিব স্যালুট ঠুঁকে দিয়েছিলেন। ভারত সফরেও তিরস্কৃত হন স্টোকস। এবার নিউজিল্যান্ডে বসে নিজের ফিরে আসার জন্য খেলবেন নাকি পরিবার নিয়ে শুধুই সময় কাটাতে ঘুরে বেড়াবেন-তা সময়ই বলে দেবে।