বার্সেলোনা নয়; নেইমারের শেষ ঠিকানা পিএসজি

এস. এম. মনিরুজ্জামান মিলন, ফুটবল বিশ্লেষকঃ হঠাৎই লাইমলাইটে নেইমার দা সিলভা সান্তোস জুনিয়র। বিশ্ব মিডিয়ায় হুট করে খবর ছড়ায় যে, বার্সেলোনার এই ব্রাজিলিয়ান তারকা রেকর্ড অর্থের বিনিময়ে ক্লাব বদল করছেন।

ব্রাজিলিয়ান চ্যানেল ‘স্পোর্তে ইন্টারাটিভো’ তে নেইমারকে নিয়ে খবর আসে, ‘বার্সেলোনা ছেড়ে ফরাসী ক্লাব পিএসজিতে পাড়ি জমাচ্ছেন নেইমার। তাকে কিনে নেবার জন্য বাইআউট ক্লজের ২২২ মিলিয়ন ইউরোই দিতে চায় পিএসজি। সে অনুযায়ী নেইমারের বেতন হবে প্রতি বছরে ৩০ মিলিয়ন ইউরো।

ব্রাজিলের সংবাদ মাধ্যমের বরাত দিয়ে স্প্যানিশ ক্রীড়া পত্রিকা মার্কা ও ইএসপিএন জানায়, নেইমার নাকি ইতিমধ্যে পিএসজি দেওয়া প্রস্তাব গ্রহণ করেছেন। নেইমার ও পিএসজির মধ্যে চুক্তিও হয়েছে ইতোমধ্যে। পিএসজি চুক্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। পাশাপাশি তারা পিএসজির জার্সি ও লোগো দিয়ে নেইমার একটি ছবিও প্রকাশ করে।

সত্যিই যদি এমনটা হয়, তাহলে লিওনেল মেসি, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো, গ্যারেথ বেল, পল পগবাকে বহু পিছনে ফেলে নেইমারই হবেন ফুটবল ইতিহাসের সবচেয়ে দামি ফুটবলার।

ব্রিটেন ও ইউরোপের বিভিন্ন পত্রিকায় গত কিছুদিন ধরেই এ নিয়ে বিস্তর খবর ছাপা হচ্ছে। বাদ পড়ছেনা বাংলাদেশি পত্রপত্রিকা, অনলাইন নিউজ পোর্টালগুলোও।

ইউরোপিয়ান গণমাধ্যম খবর দিয়েছে যে, নেইমার নাকি বার্সেলোনায় তার টিমমেটদের ইতোমধ্যেই বলে দিয়েছেন যে তিনি চলে যাচ্ছেন। না যাওয়ার কথা বললে তিনি মেজাজ ধরে রাখতে পারছেন না। এরই জেরে ক’দিন আগে সতীর্থের সাথে বিবাদে জড়ান নেইমার। এ কারণে গতদিন নেইমারবিহীন ফটোসেশন সম্পন্ন করে বার্সা তারকারা।

খবরে আরও বলা হয়, নেইমারকে টানতে বিপুল পরিমাণ অর্থের সঙ্গে সামঞ্জস্য আনতে ক্লাবটি ছেড়ে দিতে পারে দুই-একজন তারকাকে। এদের মধ্যে রয়েছেন আর্জেন্টিনার অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়া, ফ্রান্সের ব্লাইজ মাতুইদি এবং ব্রাজিলের লুকাস মুয়ারা।

সাবেক ও বর্তমান তারকারা বিভিন্ন রকম মন্তব্য করছেন। কেউ বার্সেলোনায় থেকে যেতে বলছেন, কেউবা সাহস দেখাতে বলছেন আবার কেউবা বিষয়টা নেইমারের উপরেই ছেড়ে দিচ্ছেন।

খোদ নেইমার বলেছেন, ‘আমি দ্বিধান্বিত।’

নেইমারকে নিয়ে প্রথম যখন খবর ছড়ায় তখন বিশ্বের অনেক নামীদামী পত্রপত্রিকা, অনলাইন পোর্টাল বিষয়টিকে গুজব বলে উড়িয়ে দেয়।

যতই দিন গড়াচ্ছে, নেইমারের দলবদল ইস্যু ততই বেশি জটিলতর রূপ ধারণ করছে। তবে দিন গড়ানোর সাথে সাথে নেইমার ইস্যুতে ধীরে ধীরে নমনীয় হয়ে পড়ছেন বার্সা কর্তারা।

এ থেকে সহজেই আন্দাজ করা যাচ্ছে, খুব অল্প দিনের মধ্যেই সম্পন্ন হতে চলেছে নেইমার ও পিএসজির মধ্যকার ঐতিহাসিক চুক্তি। চুক্তি সম্পন্ন হলেই নেইমার হবেন ফুটবল ইতিহাসের সবচেয়ে দামি ফুটবলার।

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালে ব্রাজিলিয়ান ক্লাব সান্তোস ছেড়ে বার্সায় যোগ দেন নেইমার। নেইমারকে ৭০ মিলিয়ন পাউন্ডে কিনেছিল বার্সেলোনা। অল্প দিনেই তুরুপের তাস বনে গিয়েছিল নেইমার। সে সময় তাকে যাতে অন্য কোন ক্লাব কিনে নিতে না পারে, সেজন্য তার চুক্তিতে বলা হয়েছিল যে, তার বাইআউট ক্লজ ২২২ মিলিয়ন ইউরো। ফরাসি ক্লাব পিএসজি নাকি সেই দামেই রাজি হয়ে গেছে। কাতালান ক্লাবটির সঙ্গে নেইমারের চুক্তি রয়েছে ২০২১ সাল পর্যন্ত।

এস. এম. মনিরুজ্জামান মিলন
ফুটবল বিশ্লেষক,
স্পোর্টসজোন টোয়েন্টিফোর