নতুন ফুটবলার কেনার টাকা নেই ম্যানসিটির!

ফুল ব্যাক ছাড়াই ২০১৭-১৮ মৌসুমের জন্য দল গঠনে ইতোমধ্যে ১২০ মিলিয়ন পাউন্ডেরও বেশী অর্থ খরচ করে ফেলেছে ম্যানচেস্টার সিটি। এ সময় তারা দলে ভিড়িয়েছে বেনজামিন মেন্ডি, কেইল ওয়াকার, বেমার্ডো সিলভা ও এডিনসনের মত তারকাদের। তাই এই মুহূর্তে নতুন কোনো ফুটবলারকে দলে ভেড়ানোর মত অর্থ বিনিয়োগে অক্ষম ক্লাবটি! বিষয়টি জানিয়েছেন খোদ ম্যানসিটি কোচ পেপ গার্দিওলা।

গার্দিওলা বলেছেন, ‘দল বদলের বাজারে তার ক্লাবটি প্রচুর বিনিয়োগ করে ফেলায় নতুন করে একজন সেন্টার ব্যাক দলে ভেড়ানো বেশ কঠিন। ’

ইতোমধ্যে এসি মিলানে যোগ দেয়ার আগে লিওনার্দো বনুচ্চিকে দলে ভেড়াতে চেয়েছিলেন গার্দিওলা। টানতে চেয়েছিলেন সাউদাম্পটনের ভিরজিল ফন ডিককেও। তবে স্প্যানিশ এই কোচ বুঝতে পেরেছেন যে একজন সেন্টার ব্যাক দলে টানার মত তহবিল এই মুহূর্তে সিটির নেই। কারণ তাদের সম্ভাব্য টার্গেটের তালিকায় এলেক্সিস সানচেজ ও কিলিয়ান এমবাপেও রয়েছেন।

গার্দিওলা বলেন, ‘জন, ভিকি ও নিকোকে পেয়ে আমি খুশি। আমাদের এখন আর বেশি অর্থ ব্যয় করার প্রয়োজন নেই। পর্যাপ্ত খেলোয়াড় না থাকায় ইতোমধ্যে দলবদলে আমরা প্রচুর অর্থ ব্যয় করেছি। গত মৌসুমের স্কোয়াডটি নিয়েও আমি সন্তুষ্ট ছিলাম। এ সময় আমরা যা অর্জন করেছি তাতে আমি খুশি। ‘

গার্দিওলা আরো বলেন, ‘আমাদের কোনো খেলোয়াড়ের মুখ থেকে আপনি কোনো খারাপ শব্দ শুনবেন না। দলে আমরা একটি ভালো দৃষ্টান্ত তৈরি করেছি। ভালো খেলেছি। তবে মাঝে মধ্যে প্রতিপক্ষের জালে সময়মত বল পাঠাতে ব্যর্থ হয়েছি। দলকে আরো শক্তিশালী করার জন্যই আমরা আরো খেলোয়াড় কেনার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম। ‘

বর্তমানে মৌসুম পূর্ব সফরে যুক্তরাস্ট্রে রয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। সেখানে ইন্টারন্যাশনাল চ্যাম্পিয়নস কাপে তারা ৪-১ গোলে ধরাশায়ী করেছে ইউরো ও স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদকে। টুর্নামেন্টের পরবর্তী ম্যাচে তাদের প্রতিপক্ষ টোটেনহ্যাম হটস্পার।