বোর্ডের উপর চটেছেন ওয়ার্নার!

‘টাকার সংকটে রয়েছে বোর্ড’ বোর্ডের এমন কথায় বেজায় ক্ষেপেছেন ডেভিড ওয়ার্নার।

চলমান দ্বন্দ্ব না থামলে বাংলাদেশ সফর তো বটেই, শঙ্কায় পড়বে অ্যাশেজও। এই মুহুর্তে সংকট নিরসনে মধ্যস্থতার কথা বলা হলেও দুই পক্ষ পরষ্পর বিরোধী অবস্থানে অনড়।

অজি ক্রিকেটাররা খেলতে চায়, পেশাদার ক্রিকেটারদের জন্যে অর্থও জরুরী। সেটা মনে করিয়ে দিয়ে ডেভিড ওয়ার্নার বলেন, “অস্ট্রেলিয়ার সব নারী ও পুরুষ ক্রিকেটার এটার (টাকার) জন্যই খেলতে চায়। আমরা তৃণমূল পর্যায়ে ৩০ মিলিয়ন ডলার দেয়ার প্রস্তাব করেছিলাম। তবে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া সেটা মানেনি। আমরা বোর্ডকে এর আগেও দুবার মধ্যস্থতার কথা বলেছি। তারা সেটাও প্রত্যাখ্যান করেছে। এখন তারা বলছে, অর্থের সংকট রয়েছে।”

বোর্ডকর্তাদের একহাত নিয়েছেন ওয়ার্নার
সম্প্রতি বোর্ডের দেওয়া ‘টাকার সংকটে রয়েছে বোর্ড’ উদ্ধৃতিতেই আপত্তি ওয়ার্নারের। তিনি মনে করেন তেমনটি হলে বোর্ড কর্মকর্তারাও বেতন পেতেন না। ওয়ার্নার বলেন, “দেখুন, ক্রিকেটাররা বেকার হয়ে বসে আছে। আর্থিক সমস্যা থাকা সত্ত্বেও তারা ট্রেনিং করছে। তবে অর্থ সংকট থাকা সত্ত্বেও বোর্ড কর্তাদের বেতন বন্ধ হয়নি। তারা নিয়মিত বেতন পাচ্ছেন। আমার প্রশ্ন হচ্ছে, আমাদের ভুলটা কোথায়?”

শুধু অজি ক্রিকেটারদেরই নয়, দ্বন্দ্ব অবসান হওয়ার দাবি বাংলাদেশী ক্রিকেট সমর্থকদেরও। ঘরের মাঠে অজিদের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচ দেখার স্বাদটা যে ভুলতে বসেছে তারা।