শচীনের এক দশক আগেই ডাবল সেঞ্চুরির মালিক ছিলেন যে অজি অধিনায়ক

সারা বছর প্রচারের আলো পড়ে না নারী ক্রিকেটে। বিশ্বকাপ চলাকালীন সময়ই শুধু সোশাল মিডিয়ায় হাজারও শুভেচ্ছাবার্তা পায় নারী ক্রিকেটাররা। টুর্নামেন্ট শেষ মানেই ফের সেই দূরবীক্ষণ যন্ত্র দিয়ে নারী ক্রিকেটের রোডম্যাপ খুঁজে বেড়াতে হয়। কিন্তু শচীন-শেবাগের অনেক আগেই ওয়ান ডে ক্রিকেটে ডাবল সেঞ্চুরি হাঁকিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার এক নারী ক্রিকেটার। এই খবর জানেন না অনেকেই। শুধু তাই নয়, ক’জনই বা খোঁজ রাখেন ছেলেদের বিশ্বকাপের অনেক আগেই শুরু হয়েছিল নারী ক্রিকেটে বিশ্বচ্যাম্পিয়ন খোঁজার প্রতিযোগিতা।

পুরুষদের থেকে দুই বছর আগে অর্থাৎ ১৯৭৩ সালে প্রথমবার বিশ্বকাপ মঞ্চে দেখা গিয়েছিল নারী ক্রিকেটারদের।

২০১০ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি। প্রথম পুরুষ ক্রিকেটার হিসেবে ওয়ান ডে ক্রিকেটে ২ শ রানের মাইলস্টোন স্পর্শ করে ইতিহাসের পাতায় নাম লেখান শচীন টেন্ডুলকার। শচীনের এই রেকর্ডের এক দশক আগে শচীনের শহরেই ইতিহাস সৃষ্টি করেছিলেন এক অজি নারী ক্রিকেটার। সেই নারী ক্রিকেটারের নাম বেলিন্দা ক্লার্ক।

শচীনের মতো ইনিও ডানহাতি। পার্থক্য শুধু তিনি নারীদের ক্রিকেটের প্রতিনিধি। তাই হয়তো হাজার খুঁজলেও নারী ক্রিকেটে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির মালিকের একটাও ভালো মানের ভিডিও পাওয়া যায় না। ২ শ রানের মালিক বেলিন্দা ক্লার্কের ঐতিহাসিক ইনিংসের কয়েকটি স্টিল ছবি দেখেই কৌতুহল নিবারণ করতে হয়।

ক্রিকেটের ইতিহাস ঘেঁটে দেখলে পরিসংখ্যান বলছে ১৯৯৭ সালে মহিলা বিশ্বকাপে মুম্বাইয়ে ডেনমার্কের বিরুদ্ধে ২২৯ রানের অপরাজিত ইনিংস খেলেছিলেন ক্লার্ক। ১৫৫ বলে ২২টি চারের সাহায্য মাইলস্টোন গড়েন তিনি। স্ট্রাইক রেট ছিল ১৪৭.৭।