আইসিসি থেকে বড় রকমের সুখবর পেল পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড

অনেক বছর হয়ে গেল আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে বঞ্চিত পাকিস্তান। নিরাপত্তার শঙ্কা থাকায় সেখানে ২০০৯ সালের পর থেকে খেলতে যায়নি কোনো বড় দল, হয়নি পূর্ণ কোনো মেগা টুর্নামেন্ট।

এবার চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয়ের পর আবারো পাকিস্তানের মাটিতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরানোর সুর তুলেছে দেশটির কিংবদন্তি থেকে শুরু করে বর্তমান ক্রিকেটাররা। তাতে, কতটুকু সফল হবে পাকিস্তান তা দেখার জন্য হয়তো খুব বেশিদিন অপেক্ষা করতে হবে না।

২০০৯ সালে শ্রীলঙ্কা দলের টিম বাসের ওপর সন্ত্রাসী হামলার পর ২০১৫ সালে অনেক অনুরোধ করে জিম্বাবুয়েকে নিয়ে গিয়েছিল পাকিস্তান। সেখানে খেলতে গিয়েছিল বাংলাদেশের নারী দল। বেশ কয়েকবার তামিম-সাকিবদের বাংলাদেশকে আমন্ত্রণ জানালেও লাল-সবুজের দলটি তাদের আমন্ত্রণ রক্ষা করেনি শুধুমাত্র নিরাপত্তা না থাকায়। এবার পাকিস্তান জাতীয় দলের বিপক্ষে বিশ্ব একাদশকে খেলানোর চেষ্টা করছে দেশটির ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)।

পাকিস্তানের বর্তমান ব্যাটিং কোচ ও জিম্বাবুয়ের কিংবদন্তি অ্যান্ডি ফ্লাওয়ারের কোচিংয়ে আগামী সেপ্টেম্বরে দক্ষিণ আফ্রিকার ব্যাটসম্যান হাশিম আমলা, অস্ট্রেলিয়ার সাবেক অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্ক বিশ্ব একাদশের হয়ে পাকিস্তানে খেলতে যাবেন বলে খবরে জানানো হচ্ছে। পাকিস্তানের বিপক্ষে তিনটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে বলে জানা যায়।

পিসিবির চেয়ারম্যান শাহরিয়ার খান পাকিস্তানের একটি টেলিভিশনে জানিয়েছেন, ‘অ্যান্ডি ফ্লাওয়ার সফরকারী বিশ্ব একাদশের কোচ থাকবেন। শুনেছি হাশিম আমলা, মাইকেল ক্লার্কের সাথে নিউজিল্যান্ডের লুক রনচি, অস্ট্রেলিয়ার টিম পেইনও বিশ্ব একাদশে থাকবেন। বিশ্ব একাদশের কোচের দায়িত্ব পালন করবেন বর্তমান পাকিস্তান দলের ব্যাটিং কোচ অ্যান্ডি ফ্লাওয়ার।’

পিসিবি আশা করছে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ সংস্থা, আইসিসি এই ম্যাচগুলোকে আন্তর্জাতিক ম্যাচের মর্যাদা দেবে। সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করার পর পিসিবি এখন সরকারের সবুজ সংকেতের অপেক্ষায়। ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে গত পিএসএলের ফাইনাল হওয়া লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে।