ওয়াইড বলেও চালু হচ্ছে ‘ফ্রি-হিট’!

ক্রিকেটকে আরো আকর্ষণীয় করে তোলার জন্য ফ্রাঞ্জাইজি ক্রিকেট টুর্নামেন্টগুলোর প্রাণান্ত চেষ্টা নতুন নয়। ক্রিকেটের এই ক্ষুদ্রতম সংস্করণকে আরো জনপ্রিয় করতে এবার এক বড় ধরণের সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার বিগ ব্যাশ টি –টিয়েন্টি লিগ। ওয়াইড বল করলেও ব্যাটসম্যান একটি ফ্রি হিট বলে উপহার পাবে- এমন একটি পরিবর্তনের আনার কথা চলছে এই টুর্নামেন্ট আয়োজকদের মাঝে।

ফ্রি হিটের নিয়ম অনুযায়ী প্রতিটি ওয়াইড এবং নো বলের জন্য একটি করে ফ্রি শট খেলার সুযোগ পাবেন ব্যাটসম্যানরা। মূলত খেলাটিকে আরও আকর্ষণীয় এবং রোমাঞ্চকর করতে এই সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে বিগ ব্যাশ কর্তৃপক্ষ। টুর্নামেন্টের আসন্ন মৌসুমে প্রতিটি ওয়াইড বলের জন্যও দেয়া হবে ফ্রি হিট। অর্থাৎ যেকোন ধরনের অবৈধ (নো এবং ওয়াইড) বলেই বোলারদের পেতে হবে ফ্রি হিটের শাস্তি।

সবকিছু ঠিক থাকলে আগামী জুলাইয়ে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ), অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার্স অ্যাসোসিয়েশন (এসিএ) এবং আম্পায়ারদের কাছে এসব পরিবর্তনের ব্যাপারে যুক্তি তুলে ধরবেন বিগ ব্যাশ টুর্নামেন্ট কমিটির প্রধান অ্যালিস্টার ডবসন, সিএ`র ইভেন্ট এক্সিউটিভ এভরার্ড এবং ম্যানেজাররা। চূড়ান্ত অনুমোদন পেলে এসব নিয়ম কার্যকর করা হবে বিগ ব্যাশে।

বিগ ব্যাশে যেসব পরিবর্তনের কথা ভাবা হচ্ছে-

১। ওয়াইড বলেও থাকবে ফ্রি হিট।

২। ইনিংসের ১০ ওভার যাওয়ার পর সাবস্টিটিউট খেলোয়াড় ব্যবহার করা যাবে।

৩। ছয় ওভারের পাওয়ারপ্লে দুই ভাগ করা হবে। প্রথমে চার ওভার এবং বাকি দুই ওভার পরের ১৬ ওভারের যেকোন সময়।

৪। প্রতি ইনিংসের প্রথম ১০ ওভারের পারফরম্যান্সের ওপর থাকবে বোনাস পয়েন্ট।

৫। প্রতি পাঁচ ওভার পর বিজ্ঞাপনী এবং খেলোয়াড়দের স্ট্র্যাটেজি ব্রেক দেয়া হবে।

৬। বিদেশি খেলোয়াড়দের ড্রাফটের নিয়মে পরিবর্তন।