করোনায় কেড়ে নিল ফুটবলার মোহাম্মদ ফারাহর জীবন

করোনাভাইরাসের ঝুঁকিতে স্থবির ফুটবল বিশ্ব। নামী সব ঘরোয়া ফুটবলের আসর স্থগিত। পিছিয়ে দেয়া হয়েছে কোপা আমেরিকা ও ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের আসর। আক্রান্ত হয়েছেন খেলোয়াড়, কোচ ও সংগঠকরা।

এরইমধ্যে মারা গেছেন রিয়াল মাদ্রিদের সাবেক প্রেসিডেন্ট লরেঞ্জো সাঞ্জ। ২১ বছর বয়সী স্প্যানিশ কোচ ফ্রান্সিসকো গার্সিয়াও প্রাণ হারিয়েছেন। মালাগার স্থানীয় দল অ্যাথলেটিকো পোর্তাদা আলতা ক্লাবের দায়িত্বে ছিলেন তিনি। এবার না ফেরার দেশে সেনেগালের সাবেক ফুটবলার আব্দুল কাদির মোহাম্মদ ফারাহ।

করোনার ছোবলে আক্রান্ত হয়েছেন চার লাখ ৭০ হাজারের বেশি মানুষ। মৃত্যু হয়েছে ২১ হাজারেরও বেশি মানুষের। বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে ইংল্যান্ডের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় যান মোহাম্মদ ফারাহ।

সোমালিয়ান ফুটবল ফেডারেশন ও আফ্রিকান ফুটবল কনফেডারেশন ৬১ বছর বয়সী এই কিংবদন্তির মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেছে।

সমো সকার ও এনডিটিভি জানায়, ২৪ মার্চ মঙ্গলবার লন্ডনের নর্থইস্ট হাসপাতালে মারা যান তিনি। মৃত্যুর আগে কোভিড-নাইনটিন টেস্টে করা হলে পজেটিভ এসেছিল তার দেহে।

১৯৭৬ সালে স্কুল ফুটবল দিয়ে মাঠের যাত্রা শুরু হয় তার। আশির দশকের শেষ পর্যন্ত দেশটির ফুটবলের বিভিন্ন পর্যায়ে ফুটবল খেলেন। বর্তমান সরকারের যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের উপদেষ্টা হিসেবে কাজ করে আসছিলেন মোহাম্মদ ফারাহ।