সুপার ফোরে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচের প্রতিপক্ষ ও সময়সূচি চূড়ান্ত

দুঃস্বপ্নের মতো এশিয়া কাপের শুরুটা করেছিল বাংলাদেশ। শ্রীলঙ্কার সঙ্গে রীতিমতো খেই হারিয়ে ফেলেছিল টাইগাররা। আর সমীকরণ দাঁড়ায়, গ্রুপ পর্বে নিজেদের দ্বিতীয় ও শেষ ম্যাচে আফগানিস্তানের সঙ্গে হেরে গেলেই বিদায়। অন্যদিকে জিতলেই নিশ্চিত সুপার ফোর। আর সেই সুযোগ হাতছাড়া করেনি সাকিব আল হাসানের দল। ব্যাট হাতে শান্ত-মিরাজের পর বল হাতেও জ্বলে উঠেছেন শরিফুল-তাসকিনরা। অলরাউন্ড দাপটে শেষ পর্যন্ত ৮৯ রানে আফগানদের বধ করে শেষ চার নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ।

এদিকে এশিয়া কাপের সূচি অনুযায়ী, সুপার ফোরে টাইগারদের প্রথম প্রতিপক্ষ পাকিস্তান। কেননা, এশিয়া কাপের এবারের নিয়ম অনুযায়ী বাংলাদেশ গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন কিংবা রানার্স-আপ যে অবস্থান থেকেই সুপার ফোরে জায়গা করুক না কেন; ‘বি-২’ হিসেবেই সুপার ফোর নিশ্চিত করবে বাংলাদেশ। একইভাবে ভারত ও পাকিস্তানের অবস্থানও আগে থেকেই নির্ধারণ করে দিয়েছে এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি)। সুপার ফোরে উঠলে পাকিস্তান ‘এ-১’ এবং ভারত ‘এ-২’ অবস্থানে থাকবে।

এ ক্ষেত্রে নিয়মানুযায়ী, সুপার ফোরে বাংলাদেশের প্রথম প্রতিপক্ষ পাকিস্তান। আর আগামী বুধবার (৬ সেপ্টেম্বর) পাকিস্তানের লাহোরে মাঠে গড়াবে ম্যাচটি। ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় দুপুর ৩.৩০ মিনিটে।

এরপর ৯ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় ম্যাচে টাইগারদের প্রতিপক্ষ হবে ‘বি’ গ্রুপের ‘বি১’। আর রাউন্ড রবিন লিগ অনুযায়ী, সুপার ফোরের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচে সাকিব বাহিনীর প্রতিপক্ষ ‘এ২’।

এদিকে সাকিবরা আফগানদের হারানোর পরপরই জমে উঠেছে ‘বি’ গ্রুপের লড়াই। এমন সমীকরণে আফগানিস্তান ও শ্রীলঙ্কা উভয়েই সুপার ফোরের সুযোগ থাকছে। কারণ, আফগানিস্তানের সঙ্গে জয়ের পাশাপাশি নেট রানরেটেও বাড়িয়ে নিয়েছে টাইগাররা। বাংলাদেশের রানরেট এখন (+০.৩৭৩)।

তবে তিন দলের মধ্যে দুইয়ে আছে সাকিবরা। অন্যদিকে শ্রীলঙ্কার নেট রানরেট (+০.৯৫১); যা কিনা বাংলাদেশের থেকে বেশি। এ কারণে সমান পয়েন্ট নিয়েও শীর্ষে আছে লঙ্কানরা।

এখন সমীকরণ এমন যে লঙ্কানরা আফগানদের হারালে কোনো ধরনের শঙ্কা ছাড়াই সুপার ফোর নিশ্চিত করবে। আর দুই পয়েন্ট নিয়ে সুপার ফোরে ওঠে যাবে সাকিবরা। তবে আফগানরা যদি লঙ্কানদের বড় ব্যবধানে হারায় তবে শেষ চারে ওঠার সুযোগ থাকছে আফগানদেরও। আর নেট রানরেটে এগিয়ে থেকে ওঠে যাবে বাংলাদেশ। এক্ষেত্রে রানরেটের প্যাচে যাত্রা শেষ হয়ে যাবে লঙ্কানদের।