শ্রীলঙ্কায় আমরা সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারিনি – হাতুরুসিংহে

শ্রীলঙ্কা থেকে বাংলাদেশ দলকে উড়ে যেতে হয়েছে পাকিস্তানে। শনিবার লাহোরে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা থেকে রাত অবধি করার কথা রয়েছে অনুশীলন। এরপর রোববার নামতে হবে মহা গুরুত্বপূর্ণ লড়াইয়ে। এশিয়া কাপে বড় স্বপ্ন নিয়ে খেলতে গিয়ে প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে হারতে হয়েছে বেশ বড় ব্যবধানে।

টুর্নামেন্টে টিকে থাকতে হলে আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয়ের বিকল্প নেই বাংলাদেশের। এরপর তাকিয়ে থাকতে হবে আফগানিস্তান-শ্রীলঙ্কা ম্যাচের দিকেও।

রশিদ খানদের বিপক্ষে খেলতে নামার আগে বাংলাদেশ দলের হেড কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহের কাছে প্রশ্ন গিয়েছিল, ফাইনাল খেলা নিয়ে কী ভাবছেন? তিনি বলছেন, আপাতত ভাবনা আগামী ম্যাচে। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারেনি বাংলাদেশ, এমন বিশ্বাসও হাথুরুর।

তিনি বলেন, ‘ফাইনাল নিয়ে ভাবার আগে আমাদের দ্বিতীয় রাউন্ডে যেতে হবে। এই ম্যাচটা আমাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ কারণ হলো আগের ম্যাচে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে যা ঘটেছে। আমরা জানি এ ম্যাচ অবশ্যই জিততে হবে। আমরা নিজেদের সামর্থ্য অনুযায়ী খেলতে পারিনি শেষ ম্যাচে। নিজেদের ঠিকভাবে প্রতিনিধিত্বও করতে পারিনি। আমরা আত্নবিশ্বাসী যে আমাদের সেরা খেলা আগামীকাল আফগানিস্তানের বিপক্ষে নিয়ে আসতে পারবো। ’

কিছুদিন আগে ঘরের মাঠে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ হেরেছে বাংলাদেশ। দলটির আছে রশিদ খান-মুজি উর রহমানের মতো বিশ্বমানের বোলার। চ্যালেঞ্জটা তাই ভালোই জানা হাথুরুর। তিনি বলছেন, নির্দিষ্ট দিনের পারফর্ম্যান্সের ওপরই নির্ভর করছে সবকিছু।

তিনি বলেন, ‘আফগানিস্তানের বোলিং অ্যাটাক পৃথিবীর অন্যতম সেরা। অবশ্যই এটা আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জ। তবে সম্প্রতি আমরা তাদের বিরুদ্ধে খেলেছি। ব্যাটাররা সাফল্য পেয়েছে কিছু। এটা নির্ভর করছে ওই দিনে আপনি কীভাবে পারফর্ম করছেন। আমরা ভালোভাবেই জানি কী চ্যালেঞ্জ নিতে হবে আমাদের। ’

তাদের অন্যতম সেরা বোলিং অ্যাটাক আছে, বিশেষত সীমিত পরিসরের ক্রিকেটার। তাদের দুজন বিশ্বমানের পেসার আছে, কয়েকজন ভালো পেসারের সঙ্গে। আমরা তাদের থ্রেট কেমন হবে সেটা ভালোই জানি, কারণ টি-টোয়েন্টির সঙ্গে ওয়ানডেও খেলেছি তাদের বিপক্ষে। ’