মাহমুদউল্লাহদের মুখে কথা ফুটছিলো না, ঘুমাতে পারেননি সারারাত

32

শুক্রবারের ক্রাইষ্টচার্চ দুর্ঘটনা গভীরভাবে ক্রিকেটারদের মনে ছাপ ফেলেছে৷ মাত্র তিন-চার মিনিটের ব্যবধানের জন্য মৃত্যুকে খুব কাছ থেকে দেখেও প্রাণে বেঁচে যান বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা। চোখের সামনে ঘটে যেতে দেখেন নির্মম হত্যাকান্ড। ঘটনার পর থেকেই চিন্তিত ও ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে পড়েন ক্রিকেটাররা। বাতিল করা হয় তৃতীয় টেস্ট। ফিরিয়ে আনা হয় দেশে৷

২২ ঘন্টার ভ্রমণ শেষে দেশে ফিরার পর সাংবাদিকদের সাথে কথা বলার সময় কেঁদেই ফেলেন ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। প্রথম প্রথম তিনি ঘটনাটির ফলে এতোটাই প্রভাবিত ছিলেন, যে তাঁর মুখে কথা পর্যন্ত ফুটেনি৷ ভ্রমণ ক্লান্তির চেয়ে ঘটনার আকস্মিকতাই তাঁর মুখে বেশি প্রকাশ পেয়েছিলো৷

পরে ঘটনার ফলে সারারাত না ঘুমাতে পারার কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘আমরা সারা রাত ঘুমাতে পারিনি। যখন রুমে ছিলাম, একটা কথাই মনে হচ্ছিল যে আমরা কতটা ভাগ্যবান! বোর্ডের কর্মকর্তাদের সঙ্গে যখন যোগাযোগ হলো তাঁরা আমাদের উদ্ধার করলেন। বিসিবিকে ধন্যবাদ, পাপন ভাইকে (নাজমুল হাসান) ধন্যবাদ। দেশবাসীকে বলব, আমাদের জন্য দোয়া করবেন যেন আমরা এই মানসিক ধাক্কা কাটিয়ে উঠতে পারি। নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ডকেও ধন্যবাদ।’