ব্যাট হাতে ঝড়ের পর বল হাতেও দুর্দান্ত সাব্বির জেতালেন আবাহনীকে

285
Photo: Collected

ব্যাট হাতে প্রথমে ঝড় তুললেন করলেন ৩৫ বলে ৬১ রান, পরে বল হাতেও দেখালেন লেগস্পিন ভেল্কি নিলেন ২ উইকেট। বিশ্বকাপের আগে মাঠে সময়টা দুর্দান্তই কাটছে মারকুটে অলরাউন্ডার সাব্বির রহমানের।

ফতুল্লায় ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে তার অলরাউন্ড নৈপুণ্যে ভর করে উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাবকে ১৮৯ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন আবাহনী লিমিটেড।

টস জিতে আবাহনীকে ব্যাটিংয়ে পাঠানোই যেন কাল হয়েছিল উত্তরা স্পোর্টিংয়ের। তাদের বোলাররা একদমই সুবিধা করতে পারেননি। আবাহনীর ওপেনার জহুরুল ইসলাম একটুর জন্য হাফসেঞ্চুরি মিস করেন (৪৫)।

তবে ভুল করেননি মিডল অর্ডারের নাজমুল হোসেন শান্ত, অধিনায়ক মোসাদ্দেক হোসেন আর সাব্বির রহমান। শান্তর তো সেঞ্চুরির সুযোগও ছিল। ৮৪ বলে ৮৩ রানে থাকার সময় তিনি দুর্ভাগ্যজনক রানআউটের শিকার হন। মোসাদ্দেক করেন ৬৫ বলে ৬৪।

এরপরের সময়টায় রীতিমত তাণ্ডব চালিয়েছেন সাব্বির রহমান। ৪৪ বলে ৪টি করে চার ছক্কায় হার না মানা ৬১ রানের ইনিংস খেলেন মারকুটে এই ব্যাটসম্যান। আবাহনী তুলে ৬ উইকেটে ২৮৫ রান।

উত্তরা স্পোর্টিংয়ের ২১ বছর বয়সী বাঁহাতি পেসার নাহিদ হাসান ১০ ওভারে ৬৫ রান খরচায় নেন ৩টি উইকেট।

২৮৬ রানের বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শুরুতেই আবাহনী বোলারদের তোপে পড়ে উত্তরা স্পোর্টিং। ২৯ রানের মধ্যে তারা হারিয়ে বসে ৪ উইকেট, এর মধ্যে ৩টি উইকেটই নেন জাতীয় দলের পেসার রুবেল হোসেন।

সেখান থেকে আর লড়াইয়ে ফেরা সম্ভব হয়নি উত্তরার। ৩৩ ওভার ব্যাট করে ৯৬ রানেই গুটিয়ে যায় তাদের ইনিংস। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ২৪ রান করে উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান শাকির হোসেন।

আবাহনী বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে সফল রুবেল। ৫ ওভারে মাত্র ১৬ রান খরচায় তিনি পান ৩ উইকেট। ২টি উইকেট নেন আরিফুল হাসান।

আর ব্যাট হাতে তাণ্ডব দেখানো সাব্বির মাত্র ২ ওভার হাত ঘুরিয়ে ৪ রানের বিনিময়ে নেন ২টি উইকেট।