নিউজিল্যান্ডকে ওয়ানডে সিরিজে হারালে র‍্যাংকিংয়ে বড় লাফ দিবে টাইগাররা!

1611

তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে আগামীকাল নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ দল। নতুন বছরের প্রথম এই সিরিজে টাইগারদের জন্য থাকছে র‍্যাংকিংয়ে রেটিং বাড়ানোর দারুন সুযোগ। কেননা হারানোর চেয়ে এখানে পাওয়ার পরিমানটাই রয়েছে বেশি পরিমাণে।

বর্তমান আইসিসি ওয়ানডে র‍্যাঙ্কিংয়ে ১১১ রেটিং নিয়ে চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে নিউজিল্যান্ড। অন্যদিকে কিউইদের চেয়ে ১৮ রেটিং কম নিয়ে তালিকার সপ্তমস্থানে অবস্থান বাংলাদেশের। একনজরে দেখে নেওয়া যাক নিউজিল্যান্ড সিরিজে জয় কিংবা হারের পর কেমন হবে টাইগারদের ওয়ানডে রেটিং।

বাংলাদেশ ৩-০ ব্যবধানে জিতলে: আসন্ন সিরিজটি যদি বাংলাদেশ ৩-০ ব্যবধানে জিততে সক্ষম হয় সেক্ষেত্রে বাংলাদেশের নামের পাশে ৪ রেটিং যুক্ত হবে। এর ফলে ৯৭ রেটি রেটিং নিয়ে অজিদের থেকে মাত্র ৩ রেটিং দুরে থাকবে বাংলাদেশ দল। তবে ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে অস্ট্রেলিয়া হেরে গেলে তাদের টপকে ছয়ে আসবে বাংলাদেশ আর অজিরা নেমে যাবে সাতে।

বাংলাদেশ ২-১ ব্যবধানে জিতলে: স্বাগতিকদের বিপক্ষে ২-১ ব্যবধানে সিরিজ জিতলেও রেটিংয়ে উন্নতি হবে বাংলাদেশের। সেক্ষেত্রে মাশরাফিদের পাশে যুক্ত হবে ২ রেটিং। এক্ষেত্রে ২ রেটিং হারাবে কিউইরা। এর ফলে তাদের রেটিং কমে দাঁড়াবে ১০৯-এ।

নিউজিল্যান্ড ২-১ ব্যবধানে জিতলে: সফরকারীদের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজটি ২-১ ব্যবধানে জিতে নিলে ব্ল্যাকক্যাপসদের রেটিং বাড়বে না। তবে সিরিজ শুরুর আগে নিজেদের নামের পাশে থাকা ১১১ রেটিং নিয়েই সিরিজ শেষ করতে পারবে দলটি। অন্যদিকে একই পরিণতি হবে বাংলাদেশেরও। অর্থাৎ ৯৩ রেটিং নিয়ে সেক্ষেত্রে সিরিজ শেষ করবে টাইগাররাও।

নিউজিল্যান্ড ৩-০ ব্যবধানে জিতলে: বুধবার থেকে শুরু হতে যাওয়া সিরিজটিতে বাংলাদেশকে ধবলধোলাই (হোয়াইটওয়াশ) করতে পারলে রেটিং বাড়বে কিউইদের। এক্ষেত্রে র‍্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের উপরে থাকায় কিউইদের প্রাপ্তিতে যুক্ত হবে কেবল ১ রেটিং। পক্ষান্তরে হোয়াইটওয়াশের তিক্ত স্বাদে ৩ রেটিং হারাবে সফরকারীরা। সেক্ষেত্রে বাংলাদেশের রেটিং কমে দাঁড়াবে ৯০ রেটিংয়ে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here