নতুন ফরম্যাটে হবে ২০২৭ বিশ্বকাপ

টানা দেড় মাসের ক্রিকেট যুদ্ধ শেষে অবশেষে পর্দা নেমেছে ক্রিকেট বিশ্বকাপের। ৪৮ ম্যাচের এবারের আসরে ছিল মোট দশ দল। খেলা হয়েছে রবিন রাউন্ড পদ্ধতিতে। শীর্ষ চার জায়গা করে নিয়েছে সেমিফাইনালে। টুর্নামেন্টে এবারের বড় চমক ছিল আফগানিস্তানের উত্থান। চার ম্যাচ জিতে বিশ্বকাপকে অনেকটাই জমিয়ে দিয়েছিল দেশটির ক্রিকেটাররা।

তবে এরমাঝেও ছিল অন্যরকম কিছু। বিশ্বকাপে ওয়েস্ট ইন্ডিজ কিংবা আয়ারল্যান্ডের মত দলকে মিস করেছেন অনেকেই। দুইবারের বিশ্বকাপ জেতা উইন্ডিজকে না দেখে অনেকেই সমালোচনা করেছে ১০ দলের এই বিশ্বকাপের। আবার রবিন রাউন্ডের লম্বা সূচি নিয়েও উঠেছে বিতর্ক।

এরইমাঝে অবশ্য চূড়ান্ত হয়েছে পরের বিশ্বকাপের ফরম্যাট। যেখানে দলের সংখ্যা ১০ থেকে বেড়ে ১৪ হবে। একইসঙ্গে নতুন করে ফিরে আসবে সুপার সিক্স ফরম্যাট। সবশেষ ২০০৩ সালে দেখা গিয়েছিল এই সেরা ছয় দলের এই ফরম্যাট। ২০০৭ সালে সুপার এইট এবং ২০১১ ও ২০১৫ তে খেলা হয়েছিল নকআউট পদ্ধতিতে। ২০১৯ এবং ২০২৩ বিশ্বকাপ হয়েছে রবিন রাউন্ড পদ্ধতিতে। সেই হিসেবে ২০২৭ সালে প্রায় ২৪ বছর পর আবার দেখা যাবে সুপার সিক্স পর্ব।

পরের বিশ্বকাপ হবে আফ্রিকা মহাদেশের তিন দেশে। দক্ষিণ আফ্রিকার পাশাপাশি আয়োজক হিসেবে থাকবে জিম্বাবুয়ে এবং নামিবিয়া। সবশেষ এখানে ২০০৩ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপ এবং ২০০৭ সালের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয়। দুটো আসরই ক্রিকেটপ্রেমীদের মাঝে ব্যাপক সাড়া ফেলেছিল। ২০২৭ সালে প্রায় ২০ বিশ বছর পর আবার ক্রিকেট ফিরবে এই অঞ্চলে।

তবে ২০২৭ বিশ্বকাপে আরও একবার ফরম্যাটে পরিবর্তন আসছে। সেই বিশ্বকাপে আবার দেখা যাবে সুপার সিক্স। মোট অংশগ্রহণকারী দেশ ১৪টি। ১৪টি দলকে দু’টি গ্রুপে ভাগ করা হবে। প্রতিটা গ্রুপ থেকে ৩টি করে টিম উঠবে সুপার সিক্সে। সেখান থেকে শুরু হবে সেমিফাইনাল ও ফাইনালের লড়াই। বিশ্বকাপ শুরু হবে অক্টোবর মাসে। চলবে নভেম্বর পর্যন্ত।

আয়োজক দেশ হিসেবে দক্ষিণ আফ্রিকা ও জিম্বাবুয়ে ২০২৭-র একদিনের বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পাবে। এছাড়া ওয়ানডে ব়্যাঙ্কিংয়ের প্রথম আটটি দল সরাসরি খেলতে পারবে সেই বিশ্বকাপে। বাকি চারটি দেশকে বিশ্বকাপ খেলার জন্য কোয়ালিফাই করতে হবে।