তা‌মি‌মের পর ৭৫ বলে ‌সৌম্যর সেঞ্চু‌রিতে টাইগারদের বিশাল জয়

1333

সফরকারী ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ৩৩২ রানের বড় লক্ষ্যটাকেও এদিন বানিয়ে ছাড়লেন মামুলি। ফিরার ম্যাচে তামিম ১০৭ করে ফেরার পর দায়িত্ব কাঁধে তুলে নিলেন সৌম্য, তিনি তুলে নিলেন নিজের শতকটা। আলোক স্বল্পতায় খেলা আগেভাগে শেষ হলেও জয়টা সময়ের ব্যাপার ছিলো বিসিবি একাদশের। ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে ম্যাচটি জিতেও নিয়েছে বিসিবি একাদশ।

প্রস্তুতি ম্যাচে সৌম্য করেন হার না মানা সেঞ্চুরি
এইতো কদিন আগেই জাতীয় দল থেকে বাদ পড়ে জিম্বাবুয়ের সাথে প্রস্তুতি ম্যাচে এই বিকেএসপিতেই শতক হাঁকিয়ে আলো কেড়েছিলেন সৌম্য, সুযোগ মেলেছলো আবার টাইগার শিবিরে। এবার উইন্ডিজের বিপক্ষে আবার প্রস্তুতি ম্যাচ, ভেন্যু সেই বিকেএসপি। এবারও নিজের সেঞ্চুরিটা তুলে নিলেন এই বাঁহাতি টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান, আর এতে ৭ চারের সাথে ৬টা ছক্কাতে খরচ করলেন মোটে ৭৫ বল।

এর আগে।ম্যাচে উইন্ডিজের বিপক্ষে ৩৩২ রানের টার্গেটে ব্যাট কর‍তে নেমে বিসিবি একাদশের শক্র শুরু এনে দেন ওপেনার তামিম ইকবাল ও ইমরুল কায়েস। উদ্বোধনি জুটিতে ৮১ মাথায় ইমরুল আউয় হয়ে গেলে ভাঙে শুরুর জুটি। এরপর তামিম ও সৌম্য মিলে খেলতে থাকেন আপন ঢঙ্গে, দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে দুজন যোগ করেন ১১৪ রান।

এরপর তামিম ব্যক্তিগত ১০৭ রানে আউট হয়ে গেলে শুরু হয়ে ব্যাটিং ধ্বস। দলীয় ২০২ রানে তামিমের আউটের পর একে একে ফেরেন মোহাম্মদ মিঠুন (৫), আরিফুল হক (২১) ও তৌহিদ হৃদয় (০)। শামীম পাটোয়ারি ৯ রান করে আউট হন যখন দলের রান তখন ২৬৫।

এরপর উইকেটে এসে ঝড় তোলেন অধিনায়ক মাশরাফি। সেঞ্চুরি তুলে নেন সৌম্য সরকার। বিসিবি একাদশের রান যখন ৪১ তম ওভারে ৬ উইকেটে ৩১৪ তখন আলোক স্বল্পতায় খেলা শেষ হয়। ১০৩ রান করে সৌম্য, ২২ রান করে মাশরাফি অপরাজিত থাকেন। ডাকওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে বিসিবি একাদশকে ১১ রানে জয়ী ঘোষণা করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here