কোন পেসার ছাড়াই টেস্ট খেলার ব্যাপারটি দুঃখজনক : রুবেল

33

ঘরের মাঠে অনুষ্ঠিত গত কয়েক সিরিজেই স্পিনারদের আধিপত্য। সর্বশেষ টেস্টে তো একাদশে রাখাই হয়নি কোন পেসারকে। এর আগের টেস্টে মুস্তাফিজকে রাখা হলেও বল করেছেন মাত্র ৪ ওভার। কোনো পেসার ছাড়া টেস্ট ক্রিকেট খেলার বিষয়টিকে দুঃখজনক বলছেন ফাস্ট বোলার রুবেল হোসেন। সকল পেস বোলারদের জন্য বিষয়টি খারাপ লাগার উল্লেখ করে রুবেল জানান, পেসাররাও ম্যাচ জেতানোর ক্ষমতা রাখে।

তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজকে সামনে রেখে বুধবার সাংবাদিকদের সামনে আসেন রুবেল হোসেন। সংবাদ মাধ্যমে কথা বলার সময় টেস্টে পেসার না খেলানোর প্রসঙ্গ আসলে রুবেল বলেন

,‘পেস বোলাররা খেলতে পারছে না, এটা খুব দুঃখজনক। একটা পেস বোলার না নিয়ে আমরা টেস্ট খেলছি, আমাদের কন্ডিশন, উইকেট ওইরকম ছিল। আমাদের দেশের মাটিতে সফল হয়েছি। দলের প্ল্যান হয়তো ওইভাবেই ছিল। এটা পেস বোলারদের জন্য একটু তো খারাপ লাগাই।’

টানা দুই সিরিজে দারুণ ফর্মে ছিল স্পিনাররা। সেটা কী পেসারদের জন্য বাড়তি চাপ কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে রুবেল বলেন,

রুবেল হোসেন

‘আমার কাছে মনে হয় ওয়ানডেতে এমন হবে না, ওয়ানডেতে একটু ডিফ্রেন্ট হবে। উইকেটে ওইভাবে স্পিন থাকবে না। আমার কাছে মনে হয় না ওইরকম হবে। আর পেসাররা ওয়ানডে জেতানোর ক্ষমতা রাখে। অনেক ওয়ানডে ম্যাচ জিতিয়েছে পেস বোলাররা। আপনি যদি দেখেন, ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরেও পেসাররা জিতিয়েছে। আর এই কন্ডিশনেও জিতাতে পারবে। ওয়ানডেতে উইকেট স্পিন সহায়ক থাকবে না, যেভাবে টেস্টে ছিল। আর আমাদের যেই পেস বোলাররা আছে, এই কন্ডিশনে অবশ্যই ম্যাচ জেতাতে পারব।’

চলতি বছর জুলাইতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে তাদের ২-১ ব্যবধানে ওয়ানডে সিরিজ জিতে এসেছে বাংলাদেশ। এবারের টার্গেটটা কেমন হবে জানতে চাইলে রুবেল বলেন,

‘কেমন হবে, আসলে এটা বলা যাচ্ছে না। আমরা অবশ্যই সিরিজ জেতার জন্য মাঠে নামবো। ৩-০ বা ২-০ এ ধরনের কোন কিছুই বলা যাচ্ছে না। আমাদের প্রতিটা ক্রিকেটার খুব আত্মবিশ্বাসী। ভালো একটা টেস্ট সিরিজ আমরা জিতেছি, এটা আমাদের ক্রিকেটারদের অনেক আত্মবিশ্বাস দিবে। ’

বাংলাদেশের পেস আক্রমণে বেশিরভাগ সময়ই ডেথ ওভারের দায়িত্ব পড়ে রুবেল হোসেন উপর। তাতে সফল না বিফল দুইটাই হওয়ার সম্ভবনা থাকে। নিজের এই অভিজ্ঞতার বিষয়ে রুবেল বলেন,

‘আমি নয় বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছি, অবশ্যই একটু অভিজ্ঞতা হয়েছে। তারপর অনেক কষ্ট করছি ডেথ ওভারের বোলিং নিয়ে। কারণ আমার মূল চিন্তা হচ্ছে ডেথ বোলিং। কারণ আমাকে ডেথে বল করতেই হবে। এমন অবস্থায় বল করি যেখানে ম্যাচ জেতানোও যায় আবার ম্যাচ হেরেও যায়। যার কারণে আমাকে আরও বেশি ফোকাসে রাখতে হয়। এখন একটু বেশি জোর দিচ্ছি ডেথ বোলিংয়ে।’

প্রায় সময় শুনা যায়, বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা টেস্ট ক্রিকেট খেলতে চায় না। বিশেষ করে ঘরোয়া ক্রিকেট। এই বিষয়টি সম্পূর্ণ মিথ্যা বলে উল্লেখ করেন রুবেল। তার ভাষ্য,

‘ এটা সম্পূর্ণ মিথ্যা। এ ধরনের কথা কারা বের করছে জানি না। আমি টেস্ট খেলতে চাইব না কিসের জন্য। এই ক্রিকেটই আমার রটি-রুজি। এটার ওপরেই আমি চলি। আমার পরিবার চলে। তাই না, এটার সাথে তো আমার প্রতারণা করার কিছু নেই। আমি জানি না এটা কারা বের করছে, কিন্তু আমি কখনই বলি নাই আমি টেস্ট ক্রিকেট খেলতে চাই না।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here