ব্যাট হাতে ঝড় তুলে পেশোয়ারকে ফাইনালে তুললেন কামরান আকমাল

222

পাকিস্তান সুপার লিগ পিএসএলের দ্বিতীয় এলিমেনেটর ম্যাচে কামরান আকমলের দারুণ ব্যাটিংয়ে ইসলামাবাদ ইউনাইটেডকে ৪৬ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে ফাইনালে ড্যারন স্যামির পেশোয়ার জালমি।

এই ম্যাচে ব্যাট হাতে ঝড়ো তুলে মাত্র ৪৩ বলে ৩ ছক্কা ১০ বাউন্ডারিতে ৭৪ রান করে দলকে ফাইনালে তুলতে বড় অবদান রাখেন কামরান আকমল। ম্যাচ সেরার পুরস্কারও জিতেন এই পেশোয়ার ব্যাটসম্যান।

করাচিতে এই ম্যাচে টস হেরে আগে ব্যাট করা পেশোয়ার কামরান আকমল ও ইমামুল হকের ব্যাটে ভর করে রানের পাহাড় গড়েছে। নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ২১৪ রান সংগ্রহ করে ড্যারেন স্যামির দল।

ম্যাচে ব্যাট হাতে ঝড় তুলেন কামরান আকমল। মাত্র ৪৩ বলে ৭৪ রানের ইনিংস খেলেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। এছাড়া ইমামুল হকের ৩৩ বলে ৫৮ রানের ইনিংসের পর পোলার্ডের ২১ বলে ৩৭ রান ও স্যামির ১৫ বলে ৩০ রানের ক্যামিওতে রানের সংগ্রহ দুইশর উপরে নিয়ে যায় পেশোয়ার জালমি।

ইসলামাবাদের পক্ষে ডেলপোর্ট ২ টি উইকেট নেন।

২১৫ রানের বিশাল লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ওয়ালটনের ৪৮, ফাহিম আশরাফের ৩১ আর ডেলপোর্টের ২৮ রান সত্ত্বেও ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৬৬ রান করে ইসলামাবাদ ইউনাইটেড।

পেশোয়ারের পক্ষে হাসান আলি ও জর্ডান ৩ টি করে উইকেট নেন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

পেশোয়ার: ২১৪/৫ (২০)
আকমল ৭৪, ইমান ৫৮, পোলার্ড ৩৭, স্যামি ৩০*।
ডেলপোর্ট ২/২৪।

ইসলামাবাদ: ১৬৬/৯ (২০)
ওয়ালটন ৪৮, আশরাফ ৩১, ডেলপোর্ট ২৮।
হাসান আলি ৩/২৯, জর্ডান ৩/২৬।

পেশোয়ার ৪৬ রানে জয়ী।

উল্লেখ্য, আগামী ১৭ তারিখের ফাইনালে কোয়েটা গ্ল্যাডিয়েটরসের মোকাবেলা করবে পেশোয়ার জালমি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here