আদালতে ১৫ কোটি টাকার মামলা করলেন ধোনি

রাঁচির আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন মাহেন্দ্র সিং ধোনি। দুজন ব্যক্তির বিরুদ্ধে করেছেন ১৫ কোটি রূপির প্রতারণা মামলা।

ঘটনাটি ২০১৭ সালের। অর্ক স্পোর্টস ম্যানেজমেন্টের হয়ে মিহির দিবাকর ও সৌম্য বিশ্বাস নামে দুজন ব্যক্তি ধোনিকে একটি প্রস্তাব দেন। সেটা হলো ভারতের সাবেক অধিনায়কের নামে তারা বিশ্বব্যাপী একাডেমি খুলবে। সেটার জন্য ফ্র্যাঞ্চাইজি ফি’র পাশাপাশি যা লাভ হবে সেটার একটা অংশ পাবেন ধোনি। সেসময় তাদের সঙ্গে চুক্তি করেন ভারতের বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক।

কিন্তু চুক্তিপত্র অনুযায়ী চলেনি অর্ক স্পোর্টস ম্যানেজমেন্ট। এমনকি দেয়নি কোনো টাকা-পয়সাও। তাদের কাছ থেকে সাড়া না পেয়ে ২০২১ সালের ১৫ আগস্ট চুক্তি থেকে নিজের নাম প্রত্যাহার করেন ধোনি। পাশাপাশি ওই প্রতিষ্ঠানকে বেশ কয়েকবার আইনি নোটিশও পাঠান। কিন্তু কিছুতেই কিছু হয়নি। অবশেষে আদালতের দ্বারস্থ হয়ে ১৫ কোটি রূপির ক্ষতিপূরণ মামলা করেন ধোনি।

বড়দিন ও নতুন বছর উদযাপন করতে পরিবারসহ দুবাই গিয়েছিলেন ধোনি। তার সঙ্গে গিয়েছিলেন ভয়ঙ্কর দুর্ঘটনায় আহত হয়ে লম্বা ক্রিকেটের বাইরে থাকা ঋষভ পন্তও। নতুন বছর উদযাপন করে দেশে ফিরেছেন ধোনি।

এবার আইপিএলের জন্য প্রস্তুতি নিতে শুরু করবেন। গেল মাসে অনুষ্ঠিত মিনি নিলামে পন্তকে দেখা গেছে দিলি ক্যাপিটালসের টেবিলে। ২০২২ সালের পর আবার তিনি আইপিএল দিয়ে মাঠে ফিরবেন।