আইপিএল শুরুর আগেই নাইট রাইডার্স শিবিরে বড় দুঃসংবাদ!

117
photo: collected

চলতি মাসের ২৩ তারিখ থেকে মাঠে গড়াবে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) দ্বাদশ আসর। আর শুরুর আগেই বড় ধাক্কা গেল কলকাতা নাইট রাইডার্স! চোটের কারণে ২০১৯ আইপিএল থেকে ছিটকে গেলেন কলকাতা নাইট রাইডাসের দুই পেসার। প্রতিশ্রুতিময় দুই তরুণ কমলেশ নাগরকোটি ও শিভম মাভিকে আসন্ন আইপিএলে পাবে না কিং খানের দল।

বৃহস্পতিবার (১৪ মার্চ) এই দুই তরুণ ক্রিকেটারকে না-পাওয়ার কথা জানানো হয় নাইটদের তরফ থেকে।নাগরকোটির পরিবর্তে সন্দীপ ওয়ারিয়ারকে দলে ভিড়িয়েছে কেকেআর। কেরলের এই পেসার গত তিন বছর রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালুরুর দলে থাকলেও কোনও ম্যাচ খেলার সুযোগ হয়নি। এবাবের নিলামেও অবিক্রিত ছিলেন কেরেলার এই তরুণ পেসার। কিন্তু ঘরোয়া ক্রিকেটে দারুণ পারফর্মের জন্য ওয়ারিয়ারকে দলে নিল নাইট থিঙ্কট্যাঙ্ক। চলতি মৌসুমে প্রথমশ্রেণির ক্রিকেটে ৪৪টি উইকেট শিকার করেছেন তিনি।

গত বছরও চোটের কারণে শেষ মুহূর্তে আইপিএল থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন নাগরকোটি। কিন্তু অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকার জয়ী ভারতীয় দলের এই প্রতিশ্রুতিময় পেসারের প্রতি আস্থা দেখিয়ে এবারও থাকে ধরে রেখেছিল কেকেআর।বেঙ্গালুরুতে বোর্ডের জাতীয় ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে রিহ্যাবে রয়েছেন নাগরকোটি। তিনি পায়ের ইনজুরি থেকে পুরোপুরি ফিট হতে আরও দু-তিন মাস সময় লাগবে। সুতরাং আসন্ন আইপিএলে খেলা সম্ভব হচ্ছে রাজস্থানের বছর উনিশের এই পেসারের।

আইপিএল শুরুর ৯ দিন আগে টুর্নামেন্ট থেকে দুই পেসার টুর্নামেন্ট থেকে ছিটকে যাওয়ায় কিছুটা হলেও অস্বস্তিতে নাইটশিবির। নাগরকোটি গত আইপিএল না-খেললেও বেশ কয়েকটি ম্যাচ খেলেছিলেন মাভি। ভালো পারফর্ম করে নজরও খেলেছিলেন উত্তরপ্রদেশের এই ডানহাতি পেসার। কিন্তু পিঠের ব্যাথ্যার কারণে ২০১৯ আইপিএল থেকে ছিটকে গেলেন মাভি। চোটের কারণে প্রায় ছ’ মাস মাঠের বাইরে থাকতে হবে তাকে।

দ্বাদশ আইপিএল শুরু হচ্ছে ২৩ মার্চ। তবে কেকেআর-এ প্রথম ম্যাচ ২৪ মার্চ।নাইটদের প্রথম প্রতিপক্ষ সানরাইজার্স হায়দরাবাদ।